Press "Enter" to skip to content

শক্ত হাতে লড়াই করার জন্য মাদ্রাসার পড়ুয়াদের তৃণমূলের বুথ এজেন্ট করবেন মমতা ব্যানার্জী

শেয়ার করুন -

শীতলকুচিঃ দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের পরের দিন থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ থেকে বারবার তৃণমূলের বুথ এজেন্টদের নিয়ে কথা শোনা গিয়েছে। দ্বিতীয় দফায় নন্দীগ্রামে নির্বাচন হয়েছিল। নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থী ছিলেন স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর ওনার প্রতিপক্ষ প্রার্থী ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রামের নির্বাচন শুভেন্দু আর মমতার মধ্যে আত্মসম্মানের লড়াই হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর নন্দীগ্রামের নির্বাচনের দিনই শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেছিলেন যে, তৃণমূল ১০০-র বেশি বুথে এজেন্টই দিতে পারেনি।

শুভেন্দু অধিকারীর সেদিনের বক্তব্যের পর থেকে বারবার করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে তৃণমূলের বুথ এজেন্টদের কথা উঠে এসেছে। কখনো তিনি বলেছেন পাড়ার ঝগড়ুটে মহিলাদের বুথ এজেন্ট করবেন, আবার কখনো তিনি বলছেন কন্যাশ্রীর মেয়েদের বুথ এজেন্ট করবেন। আর এবার তিনি একধাপ এগিয়ে বললেন, মাদ্রাসার স্টুডেন্টদের বুথ এজেন্ট করব।

বুধবার মুখ্যমন্ত্রী শীতলকুচির সভা থেকে বলেন, নির্বাচনের দিনে বুথে ভীতু এজেন্ট রাখা যাবে না। কোচবিহারের শীতলকুচির সভা থেকে তিনি বলেন, যদি তৃণমূলের বুথ এজেন্ট বলে আমি ভয় পাচ্ছি। তাহলে বিজেপি ওঁকে মারার আগে আমি তাড়িয়ে দেব। তিনি বলেন, দরকার পড়লে বঙ্গজনীর মেয়েদের, কন্যাশ্রী মেয়েদের বুথ এজেন্ট রাখব। মাদ্রাসার ছেলে-মেয়েদেরও বুথ এজেন্ট রাখব। যারা শক্ত হাতে লড়তে পারবে তাঁদের রাখব। ভয় পেলে চলবে না।

এদিনের সভা থেকে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জনগণকে ইভিএম নিয়েও সতর্ক করে দেন। তৃণমূল নেত্রী বলেন, মাথায় রাখুন ম্যাশিন খোলার আগে দু’বার অন আর অফ করে নেবেন। ম্যাশিন ঠিক না হওয়ার পর্যন্ত কেউ সেখান থেকে নড়বেন না। ভোটের সময় যদি কেউ কিছু খাবার জিনিষ দেয়, খাবেন না। টাকা দিলে নেবেন না। ওঁরা আপনাদের টাকা দিয়ে ভোটের বাক্স পাল্টে দেবে।