Press "Enter" to skip to content

১৬ বছরের মেয়েকে ২ বছর ধরে রেপ করতো কংগ্রেস নেতা সিকন্দর খান! পর্ন সাইটে আপলোড করতো ভিডিও

শেয়ার করুন -

দেশজুড়ে উন্মাদীদের উপদ্রব লাগাতার বেড়েই চলেছে। আগে যে ধরনের খবর বাংলাদেশ, পাকিস্তান থেকে শোনা যেত, এখন সেইসব খবর ভারতেও নিত্য পাওয়া যেতে শুরু হয়েছে। অপরাধীদের লাগাতার বাড়তে চলা অপরাধ সমাজকে আরো সচেতন ও জাগ্রত হওয়ার জন্য ইঙ্গিত দিচ্ছে। মধ্যপ্রদেশ থেকে এক ঘটনা সামনে এসেছে যেখানে এক ব্যাক্তি নাম পরিবর্তন করে অপরাধমূলক কাজকর্মে লিপ্ত ছিল।

নাবালিকা মেয়ের সাথে খারাপ কাজ করার অপরাধে এক কংগ্রেস নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কংগ্রেস নেতার নাম সিকন্দর খান যে নিজের একটা ভুয়ো হিন্দু নাম রেখে মেয়েদের নিজের প্রেম জালে ফাঁসানোর চেষ্টা করতো। ১৬ বছর বয়সের এক যুবতীকে এই কংগ্রেস নেতা ব্ল্যাকমেল করে ২ বছর ধরে শোষণ করেছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। যে যুবতীকে সিকন্দর খান শোষণ করেছে তাকে দেহ ব্যাবসার কাজেও নামানোর চেষ্টা হচ্ছিল বলে দাবি করা হচ্ছে। পসকো এক্ট এর ভিত্তিতে অপরাধীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

সিকন্দর খান নিজের নাম সমীর সিং বলে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম সব জায়গায় প্রচার করেছিল। এই নাম নিয়ে কংগ্রেস নেতা এক যুবতীকে প্রেম জালে ফাঁসিয়েছিল। তারপর তাকে ব্ল্যাকমেল করে ২ বছর ধরে শোষণ করেছিল। সমীর সিং সেজে বহুজনের সাথে বন্ধুত্ব করে পর্ন সাইটে ভিডিও আপলোড করার অভিযোগও রয়েছে এই নেতার বিরুদ্ধে। সিকন্দর খান সতনাতে স্থানীয় কংগ্রেস নেতা। মধ্যেপ্রদেশে এই নেতার দাপট বেশ ভালো বলে জানা গেছে। নির্বাচনের প্রচারের ক্ষেত্রেও এই নেতার মুখ দেখা যেত।

তবে এখন মধ্যপ্রদেশে শিবরাজ সিং চৌহানের সরকার রয়েছে। তাই অপরাধীর দাপটকে অগ্রাহ্য করে তদন্ত করা সম্ভব হয়েছে বলে অনেকে দাবি করেছেন।
জিমেও সিকন্দর খান নিজের নাম সমীর সিং বলতো। সমীর সিং এর পরিচয় নিয়ে সিকন্দর খান জিমের মেয়েদের ফাঁসানোর টার্গেট করতো। মেয়েদের ভিডিও বানিয়ে পর্ন সাইটে আপলোড করতো বলেও সিকন্দর খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে।