নতুন খবরভারতবর্ষ

স্বস্তি পাবে মধ্যবিত্তরা, বাজেট নিয়ে রাহুল গান্ধীর উল্টো সুর কংগ্রেসের সাংসদের গলায়!

সাধারণ বাজেট ২০২০ () পেশ হওয়ার পর ক্ষমতায় থাকা () এটিকে ঐতিহাসিক বলে নিজেদের প্রশংসা কুড়োতে ব্যস্ত। আরেকদিকে এই বাজেটকে নিরাশাজনক বলে বিজেপির উপর আক্রমণ করেছে। কিন্তু কংগ্রেসের (Congress) সাংসদ তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শশি থারুর (Shashi Tharoor) বলেন, এই বাজেটে দেশের মধ্যবিত্তরা স্বস্তি পাবে। থারুর ট্যাক্স ট্যাক্সের ছাড় নিয়ে বলেন, এর ফলে দেশের মধ্যবিত্তরা স্বস্তি পাবে। যদিও তিনি পুরো বাজেট নিয়ে খুব একটা খুশি না।

উনি বলেন, এই বাজেট পুরনো স্লোগানের রিপ্যাকেজিং। উনি বাজেট নিয়ে ব্যাঙ্গ করে বলেন, আমরা স্ট্যান্ড আপ ইন্ডিয়া থেকে সিট ডাউন ইন্ডিয়ার দিকে যাচ্ছি। এই বাজেট নিয়ে বিরোধী পক্ষের সমস্ত নেতাই নিজেদের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। বেশিরভার নেতাই এই বাজেটকে নিরাশাজনক বলেছেন।

রাহুল গান্ধী ২০২০-২১ এর বাজেট নিয়ে বলেন, ভারতের সামনে এখন সবথেকে বড় সমস্যা হল বেকারত্ব আর অর্থব্যবস্থা। উনি বলেন, কোন ভালো পরিকল্পনা ছাড়াই এই বাজেট পেশ করা হয়েছে। ইতিহাসের সবথেকে দীর্ঘ বাজেট, কিন্তু এই বাজেটে কিছুই ছিলোনা। পুরো ফাপা বাজেট।

সমাজবাদী পার্টির রাষ্ট্রীয় সভাপতি অখিলেশ যাদব বলেন, বাজেট দেশের কৃষক আর যুবকদের হতাশ করেছে। উত্তর প্রদেশের সরকার বলেছে যে, এখানে নতুন জেনারেশন সবথেকে বেশি, কিন্তু নতুন জেনারেশনের স্বপ্ন পূরণ করার জন্য এদের কাছে চাকরি নেই, আর কোন বিনিয়োগ নেই।

কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বাল বলেছেন, আমার খুশি যে অর্থ মন্ত্রী স্বীকার করেছেন যে, রাজকোষের ঘাটতি ৩.৮ শতাংশ। ওনার দেশকে এটাও বলা উচিৎ, যদি আপনি ইউনিয়ান আর স্টেটের ঘাটতি ধরেন, তাহলে এটি ৮ শতাংশের বেশি হবে। যেটা দেশের জন্য খুব চিন্তার বিষয়।

Back to top button
Close