নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

৩৫০ লোক বাহিনীকে ঘিরে খুন্তি-দাঁ নিয়ে করেছিল আক্রমণ! শীতলকুচি কাণ্ডে রিপোর্ট কোচবিহারের SP-র

কোচবিহারঃ আজ কোচবিহারের শীতলকুচির ঘটনায় উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। ইতিমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই ঘটনার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন এবং আগামীকাল রাজ্যজুড়ে কালো ব্যাজ পরে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের প্রতিবাদ করার আহ্বান জানিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি অমিত শাহের দিকে আঙুল তুলে বলেছেন, ওনার নির্দেশেই গুলি চালানো হয়েছে যার জেরে ৪ জনের প্রাণ গেছে।

আজ কোচবিহারের শীতলকুচির ঘটনা নিয়ে কোচবিহারের SP দেবাশিস ধর জানান। ‘সকাল ৯ঃ৩০ নাগাদ একজন লোকাল ছেলে অসুস্থ হয়ে পড়ে। সে অসুস্থ হওয়ায় কারণে দু’ তিনজন তাঁর চিকিৎসা করছিল। সেটা দেখে CISF এর কজন জওয়ান তাঁদের গিয়ে জিজ্ঞাসা করে যে কি হয়েছে? তখন একটা গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে সিআইএসএফ লোকাল ছেলেটাকে মারধর করেছে। আর সেই গুজব ছড়িয়ে যাওয়ার পর প্রায় ৩০০-৩৫০ গ্রামবাসী লোকেল মেড অস্ত্র যেমন দাঁ, খুন্তি নিয়ে জওয়ানদের উপর আক্রমণ করে।”

দেবাশিসবাবু জানান, ‘ সিআইএসএফ এর সঙ্গে হোমগার্ড এই আক্রমণে আঘাত পান। এমনকি সিআইএসএফ জওয়ানদের থেকে অস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে গ্রামবাসীরা। এরপর সিআইএসএফ কুইক রেসপন্স টিমকে ডেকে নেয় আর এরপর গ্রামবাসীদের সঙ্গে তুমুল মারপিট বাঁধে। তখন এমন পরস্থিতির সৃষ্টি হয় যে, ব্যালট ইউনিট ছিনতাই হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়।”

এরপর পুলিশের এসপি বলেন, ‘ এরপর সিআইএস এফ বাহিনী ১৫ রাউন্ড ফায়ার করে এরফলে চারজনের মৃত্যু হয়। চারজনের বয়স ২২ থেকে ২৫-এর মধ্যে। তিনজন আহত হয়েছে। এছাড়াও কর্তব্যরত হোমগার্ডরাও আঘাত পান।”

Related Articles

Back to top button