আন্তর্জাতিকনতুন খবর

শুয়োরের চর্বি দেওয়া করোনার ভ্যকসিন হালাল বলল UAE, তবুও মানতে নারাজ ভারতীয় মুসলিমরা

নয়া দিল্লীঃ করোনার ভ্যাকসিনের মধ্যে শুয়োরের চর্বির ব্যবহার নিয়ে গুজবের মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি এর ফতোয়া কাউন্সিল ফতোয়া জারি করেছে। কাউন্সিলের মতে, যদি ভ্যাকসিনে শুয়োরের চর্বিও থাকে, তাহলেও মানুষকে বাঁচানোর জন্য এই টিকা লাগানো ইসলামে জায়েজ।

UAE Fatwa Council এর সভাপতি শেখ আব্দুল্লাহ বিন জানান, যদি কোনও বিকল্প না থাকে তাহলে করোনার টিকাকে ইসলামি নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখা যেতে পারে। কারণ মানুষের জীবন বাঁচানোই সবার আগে। কাউন্সিল জানিয়েছে যে, এই বিষয়ে পর্ক-জেলিটিনকে ওষুধ রুপে ব্যবহার করা হবে, খাবার হিসেবে না। আর সেই কারণে বিশ্বের সব মুসলিমরাই এই ভ্যকসিন লাগাতে পারে।

মেডিক্যাল এক্সপার্ট অনুযায়ী, টিকাতে খুবই কম পরিমাণে পর্ক-জিলেটিনের ব্যবহার করা হয় আর এই কারণে টিকা নিয়ে মুসলিমদের চিন্তা বেড়ে গিয়েছে। কারণ ইসলামি আইন অনুযায়ী শুয়োরের মাংস হারাম।

UAE Fatwa Council যতই করোনার ভ্যাকসিনে শুয়োরের চর্বি জায়েজ বলে দিক না কেন, ভারতীয় মুসলিমরা এখনো তাদের সিদ্ধান্তে অটল। মুম্বাইয়ের রাজা অ্যাকাডেমির মৌলানা সৈয়দ নুরী বলেন, ‘করোনার ভ্যাকসিনে শুয়োরের চর্বির ব্যবহার করা হয়েছে। আর এরমধ্যে যেই ভ্যকসিন ভারতে আসবে, সেটা আমাদের মুফতি আর আমাদের ডাক্তাররা নিজেদের মত পরীক্ষা করবেন। ওনারা অনুমতি দিলেই ভারতীয় মুসলিমরা ভ্যাকসিন নিন, নচেৎ না।

যদিও লখনউয়ের মৌলানা খালিদ রাশিদ ফিরঙ্গি মহলির চিন্তা ভাবনা মৌলানা সৈয়দ নুরীর থেকে আলাদা। তিনি বলেন, মানুষের সুরক্ষাই সবথেকে বড় জিনিশ আর এই কারণে গুজবে কান দেওয়ার বদলে মুসলিমরা করোনার ভ্যাকসিন নিক।

Related Articles

Back to top button