নতুন খবররাজনীতি

কর্ণাটকে বাজিমাত বিজেপির, গণনা শুরু হতেই ১০ টি আসনে এগিয়ে গেলো গেরুয়া শিবির

মহারাষ্ট্রে (Maharashtra) শিবসেনা – NCP আর কংগ্রেসের জোট সরকার গঠন হওয়ার পর এবার কংগ্রেসের নজর কর্ণাটক () উপ নির্বাচনে। কর্ণাটকে কংগ্রেস গত রবিবার সঙ্কেত দিয়েছিল যে, যদি রাজ্যের ক্ষমতায় থাকা দল বিজেপি () উপ নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজনীয় আসন না পায়, তাহলে কংগ্রেস আরও একবার জেডিএস এর সাথে মিলে সরকার গঠন করবে। কংগ্রেস থেকে জানানো হয়েছিল যে, তাঁরা আরও একবার জেডিএস এর হাত ধরার জন্য প্রস্তুত। আরেকদিকে জেডিএস এর নেতা এর আগেই সঙ্কেত দিয়েছিল যে, পার্টি এরকম সম্ভাবনার জন্য প্রস্তুত।

এক্সিট পোলের কথা বললে, স্থানীয় চ্যানেল অনুযায়ী ভারতীয় জনতা পার্টি ৯ টি থেকে ১২ টি আসন পাবে। ভোট গণনার আগে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি.এস ইয়েদুরাপ্পা বলেন, আমরা আমদের কার্যকাল কোন বাধা ছাড়াই সম্পূর্ণ করব। রাজ্যের জনতা আমাদের উপরে অনেক আশা করে আছে বলে জানান তিনি। আরেকদিকে কংগ্রেস আর জেডিএস আশা প্রকাশ করে বলেছে যে, বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের অযোগ্য ঘোষণা করার পর এবার বিজেপির টিকিটে নির্বাচনে লড়াই করা প্রার্থীদের বয়কট করবে জনতা।

কংগ্রেস আর জেডিএস এর ১৭ জন বিক্ষুব্ধ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছিল। এরপর ১৫ টি আসনে আবার নির্বাচন করানো হয়। হাইকোর্টে মোকদ্দমা চলার কারণে দুটি আসনে উপ নির্বাচন করানো হয়নি। এই ১৫ টি আওস্নের মধ্যে ১২ টি তে কংগ্রেস আর তিনটি জেডিএস এর দখলে ছিল। ২২৪ সদস্যের বিধানসভায় ১৭ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করার পর সংখ্যা ২০৭ এ নেমে আসে। আর ২৯ জুলাই ২০১৯ এ বিজেপির রাজ্যসভাপতি বি.এস ইয়েদুরাপ্পা কর্ণাটক বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করেন।

কর্ণাটকে গত ৬ ডিসেম্বর ১৫ টি বিধানসভা আসনে উপ নির্বাচন হয়। আর আজ ১৫ টি আসনে গণনা প্রক্রিয়া চলছে। রাজ্যের সমস্ত গণনা কেন্দ্রে কড়া সুরক্ষার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। সকাল আটটা থেকে গণনা শুরু হয়েছে। দুপুরের পর সমস্ত আসনের পরিনাম ঘোষণা হবে। প্রাথমিক গণনায় বিজেপি ১০, কংগ্রেস দুই, জেডিএস ২ আর নির্দলীয় প্রার্থী একটি আসনে এগিয়ে আছে। কর্ণাটকে ইয়েদুরাপ্পা সরকার ধরে রাখার জন্য বিজেপিকে ছয়টি আসন দখল করতে হবে।

Back to top button
Close