Press "Enter" to skip to content

কেরলে ফের বন্যপ্রাণীর সাথে নৃশংসতা! এবার সামনে এলো চিতাবাঘকে মেরে মাংস খাওয়ার ঘটনা

শেয়ার করুন -

ইডুক্কিঃ কেরল থেকে এক নৃশংস ঘটনা সামনে আসছে। কেরলের বন বিভাগ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে। তাঁদের বিরুদ্ধে ছয় বছরের এক চিতাবাঘকে শিকার করে তাঁর মাংস খাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গোপন সুত্রে খবর পাওয়ার পর বন বিভাগের আধিকারিকরা ইডুক্কি জেলার মনকুলম এলাকা থেকে শুক্রবার পাঁচজনকে গ্রেফতার করে।

মনকুলম জেলার বন আধিকারিক উদয় সূর্যন বলেন, ধৃত পাঁচ জনের মধ্যে বিনোদ নামের একজনের বাড়ি জঙ্গলের পাশে। তাঁর বাড়ি থেকে একটি জালও উদ্ধার হয়েছে। ওই জালটিকে সে চিতাবাঘ ধরার কাজে ব্যবহার করেছিল।

বনবিভাগের আধিকারিক জানান, চিতবাঘটিকে ধরে প্রথমে তাঁকে মেরে ফেলা হয়। এরপর চিতাবাঘের মাংস রান্না করে খায় তাঁরা। চিতা বাঘের শরীর বাকি অংশ যেমন দাঁত, নখ আর চামড়া বাজারে বিক্রি করে দেয় তাঁরা।

জানিয়ে রাখি, চিতাবাঘ সংরক্ষিত বন্য জীব। আর চিতার শিকার করলে ৭ বছর পর্যন্ত সাজার নিদান আছে। এর আগে কেরল থেকে আরও এক অমানবিক ঘটনা সামনে এসেছিল। যেখানে খাবারের খোঁজ করা এক গর্ভবতী হাতিকে বিস্ফোরক পদার্থ ভরা আনারস খাইয়ে মেরে ফেলার খবর সামনে এসেছিল।