আন্তর্জাতিকনতুন খবর

পাকিস্তানি ক্রিকেটার দানিশ কানেরিয়া বললেন, অনেকেই আমার ধর্ম পরিবর্তন করার চেষ্টা করেছিল! কিন্তু …

ের () প্রাক্তন ক্রিকেটার () আরও একবার ওনার সাথে ধর্ম নিয়ে প্রতারণা হওয়ার কথা তোলেন। উনি এও বলেন যে, পাকিস্তানে অনেকবার ওনার ধর্ম পরিবর্তন করার চেষ্টা করা হয়েছে। যদিও, যারা ওনার ধর্ম পরিবর্তন করতে চাইছিল তাঁরা সফলতা পায়নি। কানেরিয়া নিজের সাথী ক্রিকেটার শোয়েব আখতারের (Shoaib Akhtar) খুব প্রশংসাও করেন। এছাড়াও উনি নিজের দেশ আর পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ডের সমালোচনা করেন।

প্রাক্তন পাকিস্তানি লেগ স্পিনার দানিশ কানেরিয়া #AskDanish সেশনে কথা বলেন, আর সেখানে তিনি ওনার প্রশংসকদের সামনে ওনার সাথে ধর্ম নিয়ে হওয়া প্রতারণা হওয়ার কথা তুলে ধরেন। অমন গুল নামক একটি ট্যুইটার ব্যাবহারকারীর কমেন্ট করেন, ‘আপনি ইসলাম কবুল করে নিন। ইসলাম ছাড়া কিছুই নেই। দয়া করে আপনি ইসলাম কবুল করে নিন।” এরপর দানিশ কানেরিয়া উত্তর দেন, ‘আপনার মতো অনেকেই চেষ্টা করেছিল আমার ধর্মপরিবর্তন করার। কিন্তু কেউ সফল হতে পারেনি।”

দানিশ কানেরিয়া একটি প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি পাকিস্তানে নিজেকে অসুরক্ষিত মনে করি। এছাড়াও উনি বলেন, আমি হিন্দু হিসেবে গর্ববোধ করি। দানিশ এও বলেন যে, আমার দলের সঙ্গীরা আমার সাথে দুর্ব্যবহার করত। আমি খুব শীঘ্রই তাঁদের নাম সার্বজনীন করব।

দানিশের এক ফ্যান ওনাকে শোয়েব আখতারকে নিয়ে প্রশ্ন করে। সে বলে, শোয়েব আখতার আপনাকে শিরোনামে এনেছে। এটার পর আপনার কেমন লাগছে? এই প্রশ্নের উত্তরে দানিশ বলেন, ‘ওনার কথা ওনার বলের মতই ধারালো। এতে কোন সন্দেহ নেই যে, আমাকে পিসিবি থেকে কোন সমর্থন করা হয়নি। তাঁরা আমার সাথে কথা বলতেই রাজি না। আমি পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হওয়ার সাজা পাচ্ছি।”

দানিশ কানেরিয়া নিজের মামা অনিল দলপতের পর পাকিস্তানের তরফ থেকে ক্রিকেট খেলা দ্বিতীয় হিন্দু খেলোয়াড়। উনি পাকিস্তানের হয়ে ৬১ টি টেস্ট আর ১৫ টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিল। ওনার উপর স্পট ফিক্সিং এর অভিযোগ উঠেছিল। এরপর ওনার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সুযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

Back to top button
Close