Press "Enter" to skip to content

রিপোর্টঃ অত্যাধুনিক লড়াকু বিমান চুক্তিতে ১০ হাজার কোটি টাকা বাঁচিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়

শেয়ার করুন -

প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়ের (Defence Ministry) আর্থিক বিভাগ আর বায়ুসেনার (Air Force) নেতৃত্বে থাকা হিন্দুস্তান অ্যারোনটিক্স লিমিটেড (HAL) লড়াকু বিমান কেনাকাটায় দরদাম করে দেশের কয়েক হাজার কোটি টাকা বাঁচিয়ে দিলো। দরদামের কারণে ৮৩ টি হাল্কা লড়াকু বিমানের চুক্তিতে ১০ হাজার কোটি টাকা কম খরচ হয়েছে।

প্রতিরক্ষা অধিগ্রহণ পরিষদ (ডিএসসি) নভেম্বর ২০১৬ সালে ৮৩ টি তেজস মার্ক-১এ বিমানের জন্য ৫০ হাজার ০২৫ কোটি টাকা চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়ের কেনা কাটার সমস্ত সিদ্ধান্ত ডিএসি-ই নেয়। প্রতিরক্ষা সুত্র থেকে জানা যায় যে, ‘প্রতিরক্ষা চুক্তি HAL করেছিল, আর দরদাম করার পর এর দাম ৪০ হাজার কোটি টাকা হয়।” এবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়ের স্বদেশী ইন্ডাস্ট্রির জন্য এখনো পর্যন্ত সবথেকে বড় প্রতিরক্ষা চুক্তিতে স্বাক্ষর করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

২০১৭ এর ডিসেম্বর মাসে বায়ুসেনা HAL কে ৮৩ টি হালকা লড়াকু বিমান কেনার জন্য টেণ্ডার জারি করেছিল। এরপর থেকেই দামের জন্য কথাবার্তা চলছিল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়ের আর্থিক সংস্থা অনুযায়ী, এলসিএ মার্ক ১এ এর দাম অনেক বেশি পড়ছিল আর তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সীতারমন এই মামলা দেখার জন্য একটি সমিতি গঠন করেছিলেন।

এরপর দুই পক্ষের মধ্যে অনেক বৈঠক হয়, কিন্তু এবার এই চুক্তি অন্তিম দফায় পৌঁছে গেছে। এই বিমানগুলো অত্যাধুনিক সুবিধা যুক্ত। এই বিমান গুলোতে হাতিয়ার খুব তাড়াতাড়ি লোড করা সম্ভব। আর এর নজরদারি প্রণালি এবং ইলেকট্রনিক প্রণালি অনেক উন্নত।