Press "Enter" to skip to content

পন্ডিত রাহুল শাস্ত্রী সেজে লোকজনকে চুনা লাগাচ্ছিল হারুন মিঞা! গ্রেফতার করল দিল্লী পুলিশ

শেয়ার করুন -

দিল্লী পুলিশ এক দুরন্ত ঠকবাজকে গ্রেফতার করেছে। গৃহ শান্তির নামে প্রতারণকরী হারুন মিঞা গ্রেফতার করা হয়েছে। হারুন মিঞা নিজেকে পন্ডিত রাহুল শাস্ত্রী হিসেবে পরিচয় দিত। হারুন মিঞা লোকজনকে কুসংস্কারের জালে ফেলে তাদের থেকে টাকা হাতিয়ে নিত।

গুগল ও ট্রু কলার এপ্লিকেশনে হারুন মিঞা নিজেকে সাহাজি বাঙালি হিসেবে পঞ্জীকৃত করে রেখেছিল। এইভাবে সে মানুষজনকে প্রতারনার শিকার করতো। এক রিপোর্ট অনুযায়ী, হারুন মিঞার উপর ঠকবাজি ছাড়াও দাঙ্গা, হত্যার নানা মামলা রয়েছে।

হারুন মিঞার এক ছেলে আরিফের উপরেও ঠকবাজি, প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে। হারুন মিঞা নিজেকে তান্ত্রিক বলেও পরিচয় দিত এবং লোকজনের বহু টাকা আত্মসাৎ করতো। এক মহিলার অভিযোগের পর পুলিশ এই ভুয়ো অনলাইন তান্ত্রিককে গ্রেফতার করেছে।

কেশবপুরমে থাকা এক মহিলার কাছে অজ্ঞাত নাম্বার থেকে ফোন এসেছিল। হারুন মিঞা ঘররের সমস্যা মিটিয়ে দেওয়ার নামে এবং ঘর শান্তি করে দেওয়ার নামে ৮৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। মহিলার সন্দেহ তখন হয় যখন ভুয়ো তান্ত্রিক আরো ৫৫ হাজার টাকা ব্যাংকের খাতায় জমা করতে বলে।

পুলিশ এর কাছে অভিযোগ জানালে তারা তদন্তে নেমে হারুন মিঞাকে গ্রেফতার করে। পুলিশ এখন দেখছে যে হারুন মিঞা আরো কতজনকে ঠকিয়েছে। লক্ষণীয় এই বছর অক্টোবর মাসে এই ধরনের আরো ঘটনা ধরা পড়েছিল। যেখানে তিন মুসলিম যুবক সাধু সেজে লোকজনকে প্রতারণা করেছিল।