Press "Enter" to skip to content

দিল্লী পুলিশ শুরু করলো অদ্ভুত পাঠশালা! দাঙ্গায় অভিযুক্ত অপরাধীদের বোঝানো হচ্ছে CAA আইন

শেয়ার করুন -

দিল্লি পুলিশ একটি অনন্য পাঠশালার আয়োজন করে খবরের শিরোনামে এসেছে। এই পাঠশালায় দিল্লিতে CAA- এর বিরুদ্ধে উপদ্রব করা অপরাধীদের CAA এর অর্থ বোঝানো হয়। দিল্লির দাঙ্গা তদন্তকারী দিল্লি পুলিশ ক্রাইম ব্রাঞ্চ SIT আদালতের আদেশ অনুযায়ী CAA এবং NRC সম্পর্কিত এক অনন্য পাঠশালাটি স্থাপন করা হয়েছে। দিল্লির সীমাপুরী থানায় স্থাপিত এই পাঠশালায়, ক্রাইম ব্রাঞ্চ SIT-র ৮জন সদস্য অপরাধীদের CAA-র অর আসল মানে বোঝায়। সীমাপুরী সহিংসতায় গ্রেপ্তার হওয়া প্রায় ১৪ জন অপরাধীদের পুলিশ গ্রেপ্তার করেছিল। এই ব্যক্তিরা জামিনে এখন বাইরে আছে।

এই পাঠশালায় আগে, ১৪ জন অভিযুক্তকে CAA এবং NRC এক্ট আইনের এক একটি অনুলিপি দেওয়া হয়েছিল। SIT আদালতের আদেশ অনুসারে প্রায় ৪৫ মিনিটের মধ্যে ১৪ জন অভিযুক্তকে ব্যাখ্যা দিয়েছিল, CAA এবং NRC কী? এর দ্বারা কারোর কোনও ক্ষতি হবে না। কার জন্য এই আইনটি করা হয়েছে তাও বলা হয়েছিল। কিছু মৌলবী ও এলাকার আরও কিছু বুদ্ধিজীবীও এই বিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত ছিল। একইভাবে, দিল্লির দাঙ্গায় জামিনে থাকা সমস্ত আসামিকে পালাক্রমে এই পাঠশালা দেওয়া হবে।

নাগরিকত্ব সংশোধন আইন কেন্দ্রীয় মোদী সরকারের মাধ্যমে আনা হয়েছিল। যার মধ্যে পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে এই আইন নিয়ে দেশের অনেক জায়গায় বিক্ষোভ দেখা যাচ্ছে। নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের বিরোধিতার কারণে সম্প্রতি দেশের বেশকিছু জায়গায় আগুন জ্বলার পরিস্থিতি উৎপন্ন হয়েছিল।

CAA এর কারণে মানুষের মধ্যে ভুল ধারণা ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ফলস্বরূপ বহু জায়গায় উস্কানি পেয়ে কট্টরপন্থীরা দেশের সম্পত্তি নষ্ট করেছে। তবে এখন দেশের সচেতন নাগরিকরা CAA নিয়ে মানুষকে বোঝাতে শুরু করেছেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতে দিল্লী পুলিশও কাজ শুরু করেছে। যারা CAA এর বিরুদ্ধে আনন্দোলনের নামে দাঙ্গা করেছিল, তাদেরকেও CAA বোঝানোর কাজ করছে দিল্লী পুলিশ।