Press "Enter" to skip to content

মাথা থেঁতলে দেওয়ার হুমকি দিয়ে মা ও নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ দিল্লীতে! ছড়িয়ে পড়ল ভিডিও

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ শীতে কাঁপছে দিল্লী, আর তাঁর মধ্যেই এক নরকিয় ঘটনা সামনে এলো। দিল্লীর রাস্তায় জীবন যাপন করা এক মহিলা আর তাঁর নাবালিকা মেয়েকেও ছাড়ল না পিশাচরা। নর্থ-ওয়েস্ট দিল্লীর ভারত নগরে অভিযুক্তরা নাবালিকা মেয়েকে পাথর দিয়ে থেঁতলে দেওয়ার হুমকি দিয়ে গৃহহীন মা আর মেয়েকে ধর্ষণ করে। এই ঘটনার ভিডিও (Viral Video) বানিয়ে কেউ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেয়।

ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। পুলিশ নির্যাতিতা আর ভিডিও করা ব্যক্তির তল্লাশি করে খুঁজে বের করে। যদিও পুলিশ জানায় যে, ভিডিও বানানো যুবক ধর্ষকদের সাথে ছিল না আর সে ছাদ থেকে এই ভিডিও বানায়। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, টুপি পরা ২০ বছরের এক যুবক হাতে পাথর নিয়ে মহিলাকে মাথা থেঁতলে দেওয়ার হুমকি দিতে দেখা যাচ্ছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, নির্যাতিতার স্বামীর সাথে বিবাদ চলার কারণে তিনি তাঁর মেয়েকে নিয়ে রাস্তায় রাত কাটাতে বাধ্য হন। নির্যাতিতার স্বামী তাকে ছেড়ে গ্রামে চলে যায়। আর এমন অবস্থায় মহিলার কাছে বাড়ি ভাড়া দেওয়ার মতো টাকা না থাকায় তাঁরা রাতে দিল্লীর রাস্তাতেই জীবন যাপন শুরু করে। আর একদিন রাত দুটো নাগাদ মদ্যপ যুবকদের নজর এই অসহায়দের উপর পড়ে, আর তাঁরা ভয় দেখিয়ে তাঁদের ধর্ষণ করে।

পুলিশ দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে। গ্রেফতার হওয়া অভিযুক্তদের মধ্যে একহন জাহাঙ্গীর পুরের বাসিন্দা সোনু (২২) আর একজন জেজে কলোনির বাসিন্দা (২৪) আছে। মহিলার বয়স প্রায় ৩৫ বছর আর তাঁর মেয়ের বয়স ১৮ বছর। ভিডিও করা যুবক জানায় যে, সে এই ভিডিও একজন সমাজসেবী কর্মীকে দিয়েছিল, আর সে অভিযুক্তদের ধরার জন্য ভিডিও ভাইরাল করে। সে জানায় যে, সে খুব ভয়ে ভয়ে ভিডিও করেছিল।