নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

মা-বোনদের সন্মান রক্ষার জন্য হিন্দু যুবকদের হাতে অস্ত্র তুলে নিতে হবেঃ দিলীপ ঘোষ

গড়বেতাঃ মহিলাদের সন্মান রক্ষার্থে হিন্দু যুবকদের হাতে অস্ত্র তুলে দেওয়ার কথা বললেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তিনি বলেন, ‘প্রতিশোধ নিয়ে থানায় যেতে হবে।” উনি আরও বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গ মাতৃপূজার দেশ। বাংলার মানুষ ভেবেছিল মহিলার হাতে রাজ্যের ক্ষমতা তুলে দিলে মা-বোনেদের সন্মান বাঁচবে। কিন্তু হল ঠিক উল্টো! রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মহিলা হওয়ার পরেও নারীদের সুরক্ষা নেই।”

তিনি বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মহিলাদের চরিত্র খারাপ বলছেন। মহিলাদের মান-সন্মানের দাম বেঁধে দিচ্ছেন। ধ’র্ষি’তা’দের ক্ষতিপূরণ দিচ্ছেন। মহিলাদের সন্মান বিক্রি করার অধিকার ওনাকে কে দিয়েছে?” দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের পর পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূলের জেলা সভাপতি বলেন, ‘উনি ভাবছেন তৃণমূলের লোকেরা হাতে চুরি পরে বসে আছে। এটা ওনার ভুল ধারণা।”

আজ পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতায় হিন্দু জাগরণ মঞ্চের সভায় যোগ দিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেই সভায় যোগ দিয়ে তিনি বলেন, ‘রাজ্যের মা-বোনদের সন্মান রক্ষার জন্য হিন্দু যুবকদের হাতে অস্ত্র তুলে নিতে হবে। হিন্দুদের এক হতে হবে। আমাদের সংবিধান মহিলাদের সন্মান রক্ষার অধিকার দিয়েছে।”

দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘সন্মান, প্রাণ আর ধর্ম রক্ষার জন্য অস্ত্র ধরা আইনের চোখে অপরাধ নয়। আমরা এখন সেটাই করব।” দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া দিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূলের জেলা সভাপতি বলেছেন, ‘এরকম কথা বিজেপির লোকেদের মুখেই মানায়। উনি বলছেন অস্ত্র তুলে নিতে। ওনার কথা শুনে অস্ত্র তুললে আইন আইনের পথে চলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে। উনি যদি ভাবেন তৃণমূলের লোকেরা হাতে চুরি পরে বসে আছে, তাহলে বলে রাখি হাজারটা দিলীপ ঘোষকে সামলানোর ক্ষমতা আমাদের আছে।”

Related Articles

Back to top button