Press "Enter" to skip to content

যতদিন না দেশের সমস্ত মুসলিমরা মসজিদে নামাজ পড়বে, ততদিন করোনা ভাইরাস দূর করা যাবেনাঃ উত্তর প্রদেশের সাংসদ শফিকুর রহমান

শেয়ার করুন -

লখনউঃ উত্তর প্রদেশের সমাজবাদী পার্টির (Samajwadi Party) সাংসদ ডঃ শফিকুর রহমান (Doctor Shafiqur Rahman Barq) ঈদ-উল-জুহায় নামাজ পড়া নিয়ে এক আজব বয়ান দিলেন, এসপি সাংসদ ডঃ শফিকুর রহমান বলেন, ঈদ-উল-জুহায় মসজিদ আর দরগাহতে মুসলিমদের নামাজ পড়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা ভুল সিদ্ধান্ত। সরকার মসজিদ আর ঈদগাহয়ে মুসলিমদের নামাজ পড়তে দেওয়ার অনুমতি দিক। কারণ দেশের সমস্ত মুসলিমরা যদি মসজিদে নামাজ পড়ে, তাহলে দেশ বাঁচবে। ডঃ শফিকুর রহমান দাবি করেন যে, যতদিন না দেশের সমস্ত মুসলিমরা মসজিদে নামাজ পড়বে। ততদিন দেশ থেকে করোনা ভাইরাস দূর করা যাবেনা।

এসপি সাংসদ হুমকির সুরেই বলেন যে, মুসলিমদের নামাজ পড়া থেকে কেউ আটকাতে পারবে না। শফিকুর রহয়ান বর্ক ঈদ উল জুহায় পশু বাজারে নিষেধাজ্ঞা জারি নিয়ে প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। উনি যুক্তি দিয়ে বলেন, ইদ-উল-জুহা মুসলিমদের বড় একটি উৎসব। মুসলিমরা যদি পশু বাজার থেকে পশু কিনতেই না পারে, তাহলে উৎসব কি করে পালন করবে। এরজন্য জেলা প্রশাসনের উচির পশু বাজার খুলে দেওয়া।

উল্লেখ্য, উত্তর প্রদেশ সরকার করোনা মহামারী সঙ্কটের কারণে দেশে সমস্ত মসজিদে নামাজ পড়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। মসজিদে শুধুমাত্র ৫ জনকেই নামাজ পড়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। আর এটা নিয়ে সমাজবাদী পার্টির সাংসদ ডঃ শফিকুর রহমান বর্ক রাজ্য সরকার আর জেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধে সুর চরায়।

গত শুক্রবার এসপি সাংসদ বেশ কয়েকজন মৌলানা আর মুসলিম নেতাদের সাথে জেলার ডিএম অবিনাশ কৃষ্ণ সিং আর এসএসপি যমুনা প্রসাদের সাথে সাক্ষাৎ করেন। সেখানে তিনি মসজিদে নামাজ পড়ার অনুমতির দাবি নিয়ে যান। কিন্তু ডিএম কৃষ্ণ সিং রাজ্য সরকারের নিয়মের কথা উল্লেখ করে বলেন, নিয়ম যেটা আছে সেটাই পালন করতে হবে। আর আইন ভাঙলে কড়া শাস্তিও দেওয়া হবে।