নতুন খবরভারতবর্ষ

ছয় মাস ধরে খালি পায়ে ঘুরছেন বিজেপির এই প্রাক্তন বিধায়ক, মহামারী শেষ না হওয়া পর্যন্ত নিয়েছেন জুতো না পরার প্রতিজ্ঞা

সাসারামঃ করোনা ভাইরাস নিয়ে গোটা দেশে আতঙ্ক ছড়িয়ে রয়েছে বিগত কয়েকমাস ধরে। এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ার জন্য মানুষ অনেক সতর্ক ভাবে জীবনযাপন করছে। আর এরমধ্যে বিজেপির এক নেতার এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়া নিয়ে এক প্রতিজ্ঞার খবর সামনে আসছে। বিহারের সাসারাম এর বিজেপির প্রাক্তন বিধায়ক ৬৫ বছর বয়সী জওহর প্রসাদ Jawahar Prasad) বিগত ছয় মাস ধরে জুতো-চপ্পল পরছেন না। উনি সংকল্প নিয়েছেন যে, যতদিন না এই মহামারী দেশ ছেড়ে যাচ্ছে, ততদিন তিনি জুতো-চপ্পল পরবেন না।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, গত মার্চ মাসেই উনি নিজের পা থেকে চপ্পল খুলে ফেলেন। এমনকি কোন অনুষ্ঠানে গেলেও তিনি খালি পায়েই যান। প্রাক্তন বিধায়কের এই সংকল্পের কারণে গোটা সাসারামে ওনাকে নিয়ে জোর চর্চা চলছে। এলাকার মানুষ জানান, জুতো না পরার কারণে প্রাক্তন বিধায়ক অনেকবার আহতও হয়েছেন, পাও কেটেছে, কিন্তু বিগত ছয় মাস ধরে উনি হাজার আঘাত সহ্য করেও জুতো পরেন নি। জ্যৈষ্ঠ মাসের গরমেও উনি খালি পায়ে হেঁটেছেন। উনি বলেছেন, যতদিনই সময় লাগুক না কেন, যতদিন না দেশ থেকে করোনা দূর হচ্ছে ততদিন আমি জুতো পরব না।

সাসারাম থেকে পাঁচবার বিধায়ক ছিলেন জওহর প্রসাদ। উনি বলেন, যতদিন না করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ সমাপ্ত হবে, ততদিন আমার এই সংকল্প জারি থাকবে। দোলের পর থেকেই উনি চপ্পল জুতো পরা ছেড়ে দেন। আর প্রতিজ্ঞা করেন যে, যতদিন না দেশ থেকে এই মহামারী যাচ্ছে, ততদিন আমি আর জুতো পরব না। রাজনৈতিক কার্যক্রম হোক আর শহরের বাইরে যেতে হোক, উনি দোলের পর থেকে আর চপ্পল পরেন নি। বিহারে নির্বাচনের প্রস্তুতি জোর কদমে চলছে, আর এরমধ্যেও তিনি সেই খালি পায়েই কাজ করে চলেছেন।

আরেকদিকে, বিরোধীরা কটাক্ষ করে বলছেন যে এটি একটি নাটক মাত্র। মানুষের সহানুভূতি প্রাপ্ত করতেই তিনি এই নাটক করছেন। বিরোধীরা জানায়, ওনার এই পলিটিক্যাল স্টান্টে কিছুই হবে না। উনি গত বার বিশাল ভোটে হেরেছেন বলেই এই নাটক করছেন। আর এবারও তিনি বিশাল ভোটেই হারবেন।

Back to top button
Close