খেলানতুন খবরভারতবর্ষ

গদ্দারদের কড়া বার্তা দিলেন গম্ভীর আর সেওয়াগ, দেশের মানুষের মন জয় করল দুজনের মন্তব্য

নয়া দিল্লিঃ দুবাইতে রবিবার আকস্মিকভাবে চূড়ান্ত স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে বিরাট (Virat Kohli) বাহিনীর। বিশেষত মেন্টর ধোনি (Ms Dhoni) দলে আসার পর মনে হচ্ছিল, এবার হয়তো ট্রফি জয়ের পর খুলবে ভারতের (India National Team) জন্য। পরপর দুই প্রস্তুতি ম্যাচে জয়ের পর আত্মবিশ্বাসও ছিল তুঙ্গে। কিন্তু গতকাল কাপ জয়ের সেই স্বপ্নের পথে বড় বাধার দেওয়াল খাড়া করে দিয়েছে পাকিস্তান (Pakistan)। ১০ উইকেটে দুরন্ত জয় তুলে নিয়ে ভারতের আত্মবিশ্বাসকে অনেকটাই পর্যুদস্ত করে দিয়েছে তারা।

স্বাভাবিকভাবেই এই জয়ের পর রীতিমতো আনন্দের পরিবেশ পাকিস্তানে। রবিবার ব্যাটিং-বোলিং সমস্ত দিক থেকেই ভারতকে পর্যুদস্ত করেছিল তারা। আর তারই সাথে সাথে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে ভারতের অপরাজেয় থাকার রেকর্ডও ভেঙে গিয়েছে কাল। বাবর আজম এবং মোহাম্মদ রিজওয়ানের দুরন্ত হাফ সেঞ্চুরিতে ১৩ বল বাকি থাকতেই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নিয়েছে পাকিস্তান। এই যে একদিকে যেমন উদযাপিত হয়েছে পাকিস্থানে তেমনই ভারতের বেশকিছু জায়গাতেও আতশবাজি পোড়ানো হয়েছে। এই ঘটনা নিয়ে সকালে মুখ খুলে ছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার বীরেন্দ্র সেওয়াগ (Virender Sehwag)।

নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে বীরু লেখেন, “দীপাবলিতে বাজি পোড়ানো ব্যান করা হয়েছে, কিন্তু গতকাল ভারতের বেশ কিছু জায়গায় পাকিস্তানের জয় উদযাপন করতে গিয়ে বাজি পোড়ানো হলো। আচ্ছা ধরে নিলাম, তারা নিশ্চিত ভাবেই ক্রিকেটের জয় উদযাপন করছিলেন। তাহলে দীপাবলিতে বাজি পোড়ানোর ক্ষেত্রে বাধা কোথায়। এত হিপোক্রেসি কেন, সমস্ত জ্ঞান কি তখনই মনে পড়ে।”

এবার এই ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন সেওয়াগেরই আরেক সতীর্থ ওপেনার গৌতম গম্ভীরও (Gautam Gambhir)। ভারতীয়দের এই বাজি পোড়ানোকে লজ্জাজনক বলে উল্লেখ করে তিনি টুইটারে লেখেন, গম্ভীর লিখেছেন, “যারা পাকিস্তানের বিজয়ে আতশবাজি পোড়াচ্ছে তারা ভারতীয় হতে পারে না। আমরা আমাদের খেলোয়াড়দের পাশে আছি। লজ্জাজনক।” সব মিলিয়ে এই ঘটনা এখন রীতিমত আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

 

Related Articles

Back to top button