Press "Enter" to skip to content

১৫ বছর বয়সেই মেয়েরা প্রসব করতে পারে, বিয়ের জন্য ২১ বছর বয়স কেন? প্রশ্ন কংগ্রেস নেতার

শেয়ার করুন -

ভোপালঃ মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান একটি সভায় বলেছিলেন যে, মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ থেকে বাড়িয়ে ২১ করা নিয়ে সমাজে আলোচনা হওয়া উচিৎ। আর এরই মধ্যে মধ্য প্রদেশের প্রাক্তন কংগ্রেস মন্ত্রী সজ্জন সিং বর্মা এই মামলায় বিতর্কিত বয়ান দেন। ওনার বয়ান নিয়ে নতুন করে হাঙ্গামার সৃষ্টি হয়েছে মধ্যপ্রদেশে রাজনীতিতে।

সজ্জন সিং বলেন, ডাক্তারদের অনুযায়ী মেয়েরা ১৫ বছর বয়সেই গর্ভবতী হওয়ার জন্য রেডি হয়ে যায়, তাহলে বিয়ের জন্য ২১ বছর বয়স পর্যন্ত অপেক্ষা করা কেন? যখন প্রথম থেকেই বিয়ের বয়স ১৮ বছর ছিল, তাহলে ১৮ বছরই থাকতে দিন না।

বলে দিই, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান সোমবার বলেন, দেশে মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ থেকে বাড়িয়ে ২১ বছর করার জন্য সমাজে আলোচনা হওয়া উচিৎ।

মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেন, ‘অনেকবার আমার মনে হয় মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ থেকে বাড়িয়ে ২১ বছর করে দেওয়া উচিৎ। এটা নিয়ে সবার আলোচনা করা উচিৎ। আমি এই আলোচনার বিষয় হতে চাই। রাজ্য ভাবুক, দেশ ভবুক এরপরই এই নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক।”