নতুন খবরভারতবর্ষ

নির্বাচনে জিতলেই চাঁদের সফর, গরম থেকে বাঁচাতে কৃত্রিম হিমবাহ, হেলিকপ্টার! ভোটারদের প্রতিশ্রুতি প্রার্থীর

চেন্নাইঃ বিধানসভা নির্বাচনে সমস্ত দলই নিজেদের ইস্তেহার প্রকাশ করেছে। সবাই ভোটারদের সামনে প্রতিশ্রুতির পাহাড় দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। বড় দলের পাশাপাশি কিছু নির্দল প্রার্থীও নিজের কেন্দ্রে ভোটারদের বড়বড় প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। তামিলনাড়ুর এক নির্দল প্রার্থী নিজের ইস্তেহারে ভোটারদের যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তা শুনে সবাই আঁতকে উঠেছে।

ওই নির্দল প্রার্থী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে, তিনি নির্বাচনে জিতলে নিজের নির্বাচনী কেন্দ্রে সবাইকে একটি করে আইফোন, একটি গাড়ি, একটি হেলিকপ্টার, একটি নৌকা, একটি রোবট, একটি করে তিনতলা বাড়ি দেবেন। আর ওই তিনতলা বাড়িতে সুইমিং পুলও থাকবে।

এছাড়াও ওই প্রার্থী যুবদের এক কোটি টাকা এবং ১০০ দিনের ছুটিতে চাঁদের সফর করানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এছাড়াও তিনি বলেছেন, নিজের বিধানসভা কেন্দ্রে একটি মহাকাশ গবেষণা সংস্থা, রকেট লঞ্চিং স্টেশন আর ৩০০ ফুট উচ্চতায় কৃত্রিম আইসবার্গ স্থাপন করবেন। এলাকার মানুষের যাতে গরম না লাগে, সেই জন্যই তিনি এই আইসবার্গ স্থাপন করতে চান। সর্বনন নামের ওই প্রার্থীর বয়স ৩৪ বছর আর তিনি বলেন, আমি চাই রাজনীতিতে যুব সমাজের আগ্রহ বাড়াতে।

সর্বনন বলেন, ‘নির্বাচনে খরচ করার জন্য আমি প্রতিমাসে ২০ হাজার টাকা কিস্তিতে টাকা নিয়েছি। আমি মনোনয়নে ১০ হাজার টাকা খরচ করেছি। দক্ষিণ মাদুরাইতে ২ লক্ষ ৩০ হাজার ভোট আছে। যদি ৫ হাজার যুব সম্প্রদায়ের মানুষ লড়ে, আর প্রতিটি প্রার্থী ৫০টি করে ভোট পেলে কোনও দলই তামিলনাড়ুতে নির্বাচনে লড়তে পারবে না। তাঁরা সবাই ভয় পাবে, আমি সবাইকে সচেতন করার জন্য নির্বাচনে লড়ছি।”

ওনাকে যখন নিজের নির্বাচনী ইস্তেহারে ওনার করা আকাশকুসুম প্রতিশ্রুতি নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হয়, তখন তিনি বলেন, ‘গত ৫০ বছরে রাজনৈতিক দলগুলো জনকল্যাণমুখী ঘোষণা করে নির্বাচনে জিতেছে। তাঁদের সরকার কোনদিনও জনসাধারণের সেবা করেনি। আমি সবাইকে সচেতন করার জন্যই এরকম ইস্তেহার জারি করেছি।” বলে রাখি, সর্বননের নির্বাচনী চিহ্ন হল ডাস্টবিন।

Related Articles

Back to top button