টাকা পয়সানতুন খবরব্যবসাভারতবর্ষ

ছিলেন ডেলিভারি বয়, এখন কোটি টাকার কোম্পানির মালিক! অনুপ্রেরণা জোগাবে সুনীলের কাহিনী

নয়া দিল্লিঃ কথায় বলে ‘ছেঁড়া কাথায় শুয়ে, লাখ টাকার স্বপ্ন দেখা’- মাত্র ২০০ টাকা দিয়ে জীবনের যাত্রা শুরু করে, আজ কোটি টাকার কারবারী হয়ে গিয়েছেন দক্ষিণ দিল্লীর সুনীল বশিষ্ঠ (Sunil Vasisth)। তাই সুনীল বশিষ্ঠের ক্ষেত্রে যেন এই উক্তিটি একেবারেই স্বার্থক।

বিশিষ্ট পিৎজা ডেলিভারি সংস্থা Flying Cakes এর মালিকের জীবনের শুরুটা একেবারেই কোন রাজকীয় ভাবে হয়নি। দশম শ্রেণীতেই ইতি জানাতে হয় পড়াশুনার রাস্তাকে। সংসারের আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে, মাঝপথেই বন্ধ করতে হয় পড়াশোনা। কিন্তু জীবনের পথে থমকে যাননি সুনীল বশিষ্ঠ।

১৯৯১ সালে মাত্র ২০০ টাকা দিয়ে পার্টটাইম প্রথম কাজ শুরু করেন দুধ বন্টনকারী হিসেবে। এরপর করেন পিৎজা ডেলিভারি বয়ের কাজ। আর তারপর কুরিয়ার কোম্পানির চাকরি পেলেও তা বেশি দিন ধরে রাখতে পারেননি তিনি। তবে জীবনের এই সংগ্রামে কখনই হার মানেননি এই মানুষটা। আবার ঘুরে দাঁড়িয়েছেন।

এসবের মধ্যে থেকে নিজের পড়াশুনাটা আবার চালিয়ে গেছেন তিনি। দিল্লীর সরকারি বিদ্যালয় থেকে ক্লাস টুয়েলভ পাস করে দিল্লীর শহীদ ভগৎ সিং কলেজে পড়াশোনার পাশাপাশি কুরিয়ার বয়ের চাকরী শুরু করেন। এরপর সেই কাজ বন্ধ হয়ে গেলে শুরু করেন এক ব্যাবসা।

২০০৭ সালে বন্ধুদের থেকে মাত্র ৬০০০ টাকা ধার করে Flying Cakes নামে একটি কোম্পানি শুরু করেন সুনীল। আর তারপর থেকে আর পেছন ফিরতে হয়নি তাঁকে। একের পর এক সাফল্যের সিঁড়ি চড়ে আজকের দিনে তাঁর টার্নওভার ৮ কোটি টাকা। মানুষের পছন্দের তালিকায় পিৎজা কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম হল Flying Cake। দোকানের বাইরে দেখা যায় উপছে পড়া লম্বা লাইনের ভিড়।

Related Articles

Back to top button