নতুন খবররাজনীতি

মোদীকে আক্রমণ করতে গিয়ে ভারতকে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া” বলে সম্বোধন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীর

লোকসভায় কংগ্রেসের নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী (Adhir Ranjan Chowdhury) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) উপর মহিলাদের বিরুদ্ধে হওয়া অপরাধ নিয়ে আক্রমণ করেন। উনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী এই ইস্যু নিয়ে কিছু বলছেন না। অধীর চৌধুরী বলেন, ‘এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক যে, প্রতিটি ইস্যু নিয়ে মুখ খোলা প্রধানমন্ত্রী মহিলাদের বিরুদ্ধে হওয়া অপরাধ নিয়ে চুপ করে আছেন। ভারত ধীরে ধীরে মেক ইন ইন্ডিয়া থেকে রেপ ইন ইন্ডিয়ার (Rape In India) দিকে অগ্রসর হচ্ছে।”

রোজ সংবাদ মাধ্যমে মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধের খবর আসার পরই উনি এই বয়ান দেন। কিছুদিন আগেই তেলেঙ্গানা রাজ্যের হায়দ্রাবাদে এক মহিলা পশু চিকিৎসককে চারজন মিলে প্রথমে ধর্ষণ করে, আর এরপর তাঁকে জীবন্ত জ্বালিয়ে মারে। আরেকদিকে উত্তর প্রদেশের উন্নাওতে ধর্ষণে দোষীরা জামিনে মুক্ত হয়ে ধর্ষিতাকে তাঁর বন্ধুদের সাথে মিলে জীবন্ত জ্বালিয়ে দেয়। অনেক সংগ্রামের পর নির্যাতিতা হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে।

অধীর রঞ্জন চৌধুরীর আগে কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি তথা কেরলের ওয়ানাড থেকে কংগ্রেসের সাংসদ রাহুল গান্ধী দেশে মহিলাদের বিরুদ্ধে বর্ধিত হিংসা নিয়ে কেন্দ্র সরকারকে আক্রমণ করেছিলেন। উনি বলেছিলেন যে, এখন গোটা বিশ্বে ভারতকে ধর্ষণের রাজধানী বলে ডাকা হয়। উনি এও বলেছিলেন যে, সবাই নিজের হাতে আইন তুলে নিচ্ছে, আর তাঁর প্রধান কারণ হল যিনি এই দেশকে চালাচ্ছেন তিনি হিংসায় বিশ্বাস করেন। উনি এও বলেছিলেন যে, গোটা বিশ্বে ভারত এখন ধর্ষণের রাজধানী বলে পরিচিত।

রাহুল গান্ধী বলেছিলেন, ‘ভারত এখন গোটা বিশ্বে  ধর্ষণের রাজধানী হিসেবে পরিচিত। অন্যান্য দেশের মানুষ প্রশ্ন তোলে যে, ভারত কেন মহিলাদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ। উত্তর প্রদেশের এক বিজেপি বিধায়ক এক মহিলাকে ধর্ষণ করে জেলে বন্দি। আর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই নিয়ে একটিও বাক্য খরচ করেননি।”

Related Articles

Back to top button