নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

তৃণমূল বনাম আব্বাস সিদ্দিকির লড়াইয়ে উত্তপ্ত ভাঙড়! ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা এলাকা

নয়া দিল্লীঃ ফুরফুরা শরীফের (Furfura Sharif) পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির (abbas siddiqui) উপর হামলা। অভিযোগের আঙুল উঠেছে ক্যানিং এর তৃণমূল (All India Trinamool Congress) বিধায়ক শওকত মোল্লার বিরুদ্ধে। আজ সোমবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরিগনার ভাঙড় থানা এলাকায়। পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির উপর হামলার পরেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে তাঁর সমর্থকেরা। আব্বাস সিদ্দিকি ফেসবুক লাইভে এসে তৃণমূল বিধায়ক শওকত মোল্লার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ এনেছেন।

উনি বলেন, ভাঙড়ে আমার অনুগামী অসুস্থ হওয়ার আমি তাঁকে দেখতে গেছিলাম। আর সেখানেই তৃণমূল বিধায়ক শওকত মোল্লা তাঁর অনুগামীদের নিয়ে আমার উপর হামলা চালায়। আব্বাস জানান, শওকত সমর্থিত হাজার হাজার দুষ্কৃতী লাঠি, বোমা, বন্দুক নিয়ে আমাকে ঘিরে ফেলেছিল। আমাকে মারার হুমকিও দিয়েছে তাঁরা। আমি যেই গাড়ি করে গিয়েছিলাম, সেটাতেও ভাঙচুর চালায় ওঁরা।

আব্বাস সিদ্দিকি এই হামলার প্রতিবাদে আদিবাসী, মুসলিম আর দলিতদের এক হয়ে রাস্তায় নামার আহ্বান জানিয়েছেন। আব্বাস জানান, আমি বরাবরই আদিবাসী আর মুসলিম সমাজের অধিকারের জন্য এগিয়ে এসেছি। আমি অসুস্থ কর্মীকে দেখতে যাওয়ায় ওঁরা আমার উপর হামলা চালিয়েছে। আমি আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের অধিকারের দাবিতে সরব হয়েছিলাম বলে, আজ আমাকে এই দিন দেখতে হচ্ছে।

উনি জানান, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সরকার যদি এর জবাব না দেয়, তাহলে আমরা রোড জ্যাম করে বুঝিয়ে দেব আমরা কি। আমি শুধু সরকারকে বুঝিয়ে দিতে চাই যে এরকম অত্যাচার আর সহ্য করা হবে না। সরকারকে এর জবা দিতেই হবে। পীরজাদা অভিযোগ করে বলেছেন, শওকত মোল্লার অনুগামীরা বেশ কয়েকজন গ্রামবাসীর হাত, পা ভেঙে দিয়েছে। এই ঘটনার প্রতিবাদে কয়েক হাজার মানুষ বাসন্তী হাইওয়ে ব্লকও করেছে বলে জানা যায়। এমনকি তাঁরা এও জানিয়েছে যে, শওকত মোল্লা গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত এই অবরোধ চলবে।

Back to top button
Close