নতুন খবরভারতবর্ষ

আরও একটি অসাধ্য সাধন করল ISRO, জলদিই সুখবর আসছে ভারতের জন্য

নয়া দিল্লিঃ ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ISRO গগনযান মিশনে একটি বড় সাফল্য অর্জন করেছে। বেশ কয়েকদিন ধরেই ক্রায়োজেনিক ইঞ্জিনের পরীক্ষা চলছিল। বর্তমানে বিজ্ঞানীরা সেই ইঞ্জিনের সফলভাবে গুণগত মান পরীক্ষা করতে সক্ষম হয়েছেন।

এর ফলে এই মিশনের কাজে গতি আরও বাড়বে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ইতিমধ্যেই ইসরোর চেয়ারপারসন কে সিভানের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর ইসরোর নতুন প্রধান হিসেবে সিনিয়র রকেট বিজ্ঞানী এস সোমনাথ যোগদান করেছেন। এখন প্রত্যেকেই তাকিয়ে রয়েছেন গগনযান মিশনের দিকে।

তামিলনাড়ুর মহেন্দ্রগিরিতে ISRO প্রপালশন ক্যাম্পাসে (প্রপালশন কমপ্লেক্স) গগনযান মিশনের লক্ষ্যে ৭২০ সেকেন্ডের জন্য একটি ক্রায়োজেনিক ইঞ্জিনের সফলভাবে পরীক্ষা করা হয়েছে। জানা গিয়েছে যে, গত বুধবার ইঞ্জিনের কার্যকারিতার ওপর হওয়া এই পরীক্ষায় সমস্ত উদ্দেশ্যগুলি সঠিকভাবে পূরণ হয়েছে।

এই প্রসঙ্গে ISRO একটি বিবৃতি জারি করে জানিয়েছে যে, দীর্ঘ সময়ের জন্য এই সফল পরীক্ষাটি মানববাহী মহাকাশ মিশন, গগনযানের জন্য একটি বড় রেকর্ড। এটি গগনযানের জন্য ক্রায়োজেনিক ইঞ্জিনের নির্ভরযোগ্যতা এবং দৃঢ়তা নির্ধারণ করে। বিবৃতি অনুসারে, এই ইঞ্জিনটি আরও চারটি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যাবে যা ১৮১০ সেকেন্ডের হবে। ISRO আরও জানিয়েছে যে, গগনযান মিশনের জন্য ক্রায়োজেনিক ইঞ্জিনের গুণমান যাচাই করার লক্ষ্যে এরপরে আরও একটি ইঞ্জিনের দু’টি স্বল্প মেয়াদী পরীক্ষা এবং একটি দীর্ঘ সময়ের পরীক্ষা করা হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ISRO প্রধান এবং সিনিয়র বিজ্ঞানী কে সিভান আগেই বলেছিলেন যে, দেশের বহুপ্রতীক্ষিত গগনযান প্রকল্পের নকশা পর্ব শেষ হয়েছে এবং এটি পরীক্ষার পর্যায়ে প্রবেশ করেছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, ISRO-এর দল দ্রুত বাড়ছে। আসন্ন স্বাধীনতা দিবসের মধ্যেই এটি সম্পন্ন হয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button