নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

রাজনীতি ছাড়ো নাহলে পরিণাম ভুগতে হবে! পুলিশ প্রশাসনকে ট্যুইটে হুঁশিয়ারি জগদীপ ধনখড়ের

কলকাতাঃ পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় রবিবার বলেন, পুলিশ আর প্রশাসনকে রাজ্যে স্বাধীন এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন করানোর জন্য নিজের রাজনৈতিক রূপ থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। উনি নিজের ট্যুইটে বলেন, যেই আধিকারিকরা রাজনৈতিক গতিবিধিতে যুক্ত আছেন, তাঁদের পরিণাম ভুগতে হবে। উনি এই ট্যুইটে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর রাজ্যের পুলিশ বিভাগকে ট্যাগ করেন।

ধনখড় ট্যুইট করে লেখেন, ‘গণতন্ত্রের প্রাণ হওয়ায় নির্বাচনের ন্যায্যতা বাধ্যতামূলক। সুতরাং পুলিশ ও প্রশাসনের উচিৎ রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ থাকা এবং তাদের রাজনৈতিক অবস্থান ত্যাগ করা। রাজ্যপাল লেখেন, ‘পুলিশের রাজনৈতিক তত্পরতা মর্মস্পর্শী তথা উদ্বেগজনক। আইন এই কাজের সাথে জড়িত কাউকে রেহাই দেবে না।”

রাজ্যপাল লেখেন, ‘উদাহরণ পেশ করা পরিণাম সামনে আসবে। আইনের অবহেলা করা মানুষদের দ্বারা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে কালিমালিপ্ত করার অনুমতি দেওয়া হবে না।” রাজ্যপাল অনেকবার অভিযোগ করে বলেছেন যে, পুলিশ আর সরকারি আধিকারিকের একাংশ রাজনৈতিক কর্মীদের মতো আচরণ করছে। তিনি প্রশাসনিক পদে থাকা মানুষদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার হুঁশিয়ারি জারি করেছেন।

কিছুদিন আগে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় রাজ্যের জনতাকে নিরপেক্ষ নির্বাচন হওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন। নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মজয়ন্তীতে উনি বলেছিলেন, ‘রাজ্যে মানুষকে আশ্বস্ত করছি যে, রাজ্যে সন্ত্রাস মুক্ত আর নিরপেক্ষ নির্বাচন করানোর জন্য পদক্ষেপ নেওয়া হবে।”

জানিয়ে রাখি, রাজ্যপাল আর রাজ্যের ক্ষমতায় থাকা তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে লাগাতার মতভেদ লেগেই থাকে। তৃণমূল থেকে অনেকবার অভিযোগ করে বলা হয়েছে যে, রাজ্যপাল একজন বিজেপির কর্মী হিসেবে আচরণ করেন। এমনকি রাজ্যপালকে বরখাস্ত করতে রাষ্ট্রপতিরও দ্বারস্থ হয়েছিল  দল।

Related Articles

Back to top button