বিশেষভারতবর্ষ

হিন্দুদের ধৰ্ম পরিবর্তন করতে এসে নিজেই হয়ে গেলেন হিন্দু! রবার্ট সোলেমন এখন সুমন কুমার

স্বামী বিবেকানন্দ একবার বলেছিলেন, কোনো একটা নিদিষ্ট ধৰ্মকে বিশ্বের সার্বভৌম ধর্মের স্বীকৃতি দেওয়া মুশকিল। তবে যদি কখনো এই স্বীকৃতি দিতে হয় তাহলে সেটা হিন্দু ধর্মকে দিতে হবে। কারণ হিন্দু ধর্ম ছাড়া বাকি সমস্ত ধৰ্ম ব্যাক্তি বিশেষ বা ব্যাক্তিবর্গ বিশেষের উপর নির্ভরশীল। হিন্দু ধৰ্ম কোনো ব্যক্তির উপর নির্ভরশীল নয়, হিন্দু ধর্ম তত্ত্বের উপর নির্ভরশীল। তাই ব্যক্তির উপর নির্ভরশীল ধর্মের ক্ষেত্রে ওই বিশেষ ব্যক্তির উপর প্রশ্ন উঠলে পুরো ধর্মের পরিকাঠামো ভেঙে পড়ে। কিন্তু হিন্দু ধর্মের ক্ষেত্রে সেটা সম্ভব নয়।

স্বামীজির কথা অনুযায়ী, হিন্দু ধর্ম সত্যের উপর নির্ভরশীল। আর এই কারণেই যুগ যুগ ধরে হিন্দু ধর্মের উপর আঘাত এলেও এখনও সনাতন সংস্কৃতি পৃথিবীতে টিকে রয়েছে। স্বামীজির কথা কতটা গভীর তা এক ঘটনায় স্পষ্ট প্রমান পায়। ঘটনা বিদেশ থেকে ভারতে আসা এক খ্রিস্টান ব্যাক্তির, যিনি মূলত হিন্দুদের ধৰ্ম পরিবর্তন করতে এসেছিলেন। পরে হিন্দু ধর্মে দ্বারা প্রভাবিত হয়ে নিজেই হিন্দু ধর্ম গ্রহন করেন।

১৯৮৪ সালে হিন্দু সংগঠনগুলির গতিবিধির উপর নজর রাখার জন্য খ্রিস্টান মিশনারিদের তরফ থেকে রবার্ট সোলেমনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। দক্ষিণ ভারতের বেশকিছু রাজ্যে হিন্দু ধর্ম পরিবর্তনের জন্য রবার্ট সোলেমন কাজ করতেন। হিন্দুদের ধর্ম পরিবর্তন করার জন্য তাকে হিন্দু ধর্ম সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান অর্জন করতে শুরু করেন। যা ধীরে ধীরে তাকে বদলে দিতে শুরু করে।

রবার্ট সোলেমন নামের এক পাদরি ইন্দোনেশিয়া থেকে ভারতে এসেছিলেন হিন্দুদের ধৰ্ম পরিবর্তন করার টার্গেট নিয়ে। তবে আজ উনি নিজে সনাতনী হিন্দু। রবার্ট সোলেমন হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করার পাশাপাশি নিজের নাম বদলে সুমন কুমার রাখেন।

শুধু এই নয়, পাদরি রবার্ট সোলেমান থেকে সুমন কুমার হওয়া ব্যাক্তির আরো বহু চমকে দেওয়া তথ্য রয়েছে।সুমন কুমার বর্তমানে আরএসএস এর প্রচারক এবং হিন্দু জাগরণ মঞ্চের ক্ষেত্ৰীয় (বিহার-ঝাড়খন্ড) সংগঠনমন্ত্রী।

Related Articles

Back to top button