নতুন খবরভারতীয় সেনা

লস্করের ৩ আতঙ্কবাদী গ্রেফতার হতেই বড় পর্দাফাঁস! মিলল ১০০ কোটির ড্রাগস

শ্রীনগরঃ জম্মু কাশ্মীরের হান্ডওয়ারায় পুলিশ পাকিস্তানের (Pakistan) জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তইবা  (Lashkar-e-Taiba)এর টেরর মডিউলের পর্দাফাঁস করেছে। এই ঘটনায় পুলিশ তিনজকে গ্রেফতার করেছে। তাদের থেকে ২১ কেজি ড্রাগও উদ্ধার করা হয়েছে। ওই ড্রাগের আন্তর্জাতিক বাজারে প্রায় ১০০ কোটি টাকা দাম আছে। এছাড়াও ১ কোটি ৩৪ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

হান্ডওয়ারা পুলিশ বৃহস্পতিবার কাশ্মীরে এখনো পর্যন্ত সবথেকে বড় জঙ্গি মডিউলের পর্দাফাঁস করেছে। আর এই অ্যাকশন কাশ্মীরের জঙ্গিদের জন্য বড়সড় ধাক্কা বলে মানা হচ্ছে। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, কাশ্মীরে জঙ্গি গতিবিধি চালানোর জন্য এখান থেকেই টাকার লেনদেন হত।

পুলিশ বয়ান জারি করে জানিয়েছে যে, গোপন সূত্রে উপত্যকায় পাকিস্তান প্রযোজিত নার্কো-টেরর মডিউলের খবর পাওয়া যায়। এরপর পুলিশ ঘাঁত লাগিয়ে জঙ্গি সংগঠন লস্করের তিন জঙ্গি সমর্থককে গ্রেফতার করে।

এসপি হান্ডওয়ারা জম্মু কাশ্মীর পুলিশের জীবী সন্দীপ চক্রবর্তী বলেন, ‘হান্ডওয়ারা পুলিশ পাকিস্তান প্রযোজিত নার্কো টেরর মডিউলের পর্দাফাঁস করেছে। আমরা তিন লস্কর জঙ্গি সমর্থককে গ্রেফতার করেছি। জঙ্গিদের কাছ থেকে ২১ কেজি ড্রাগ উদ্ধার করা হয়েছে, যার দাম আনুমানিক ১০০ কোটি টাকা। এছাড়াও ১ কোটি ৩৪ লক্ষ টাকা নগদ উদ্ধার করা হয়েছে।”

পুলিশ গ্রেফতার করা লস্করের জঙ্গিদের পরিচয় আবদুল মোমিন পীর, ইসলাম উল হোক পীর আর সৈয়দ ইফতিখার আন্দ্রাবী বলে জানিয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে যে, এই ঘটনায় এখনো কয়েকজন পলাতক যাঁদের খোঁজ চালানো হচ্ছে।

এসপি জীবী সন্দীপ বলেন, ‘এরা এই টাকা দিয়ে জঙ্গিদের সাহায্য করত। ড্রাগ ডিলার আর জঙ্গিদের গোপন সম্পর্ক সামনে এসেছে। এটি একটি বড়সড় হাবালা র‍্যাকেট। মুখ্য অভিযুক্ত ইফতিখার আন্দ্রাবীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।”

Back to top button
Close