আন্তর্জাতিকনতুন খবর

নিউজিল্যান্ডে ‘আল্লাহ”র নাম নিয়ে হামলা করা জঙ্গিকে একাই রুখে দিয়েছিল এই ভারতীয়

New Delhi: নিউজিল্যান্ডের একটি সুপারমার্কেটে হাতে চাকু নিয়ে আল্লাহর নামে স্লোগান দিতে দিতে হামলাকারী নিরীহ মানুষদের আক্রমণ করা শুরু করে দেয়। সেই সময় এক ভারতীয় এমন এক কাজ করেন, যার আশা কেউ করতে পারেন নি। শুক্রবার যেই সময় এই ঘটনা ঘটছিল, তখন অমিত নন্দ নামের এক প্রবাসী ভারতীয় অকল্যান্ডের সুপারমার্কেটে কেনাকাটার জন্য গিয়েছিলেন। তখনই উনি মানুষের আর্তনাদ শুনতে পারেন। উনি কিছু বুঝে ওঠার আগেই, মানুষ প্রাণ বাঁচাতে এদিক ওদিক পালানো শুরু করে। এরপর অমিত দেখতে পারে যে, এক ব্যক্তি হাতে চাকু নিয়ে তাণ্ডব করছে।

ডেইলি মেলের রিপোর্ট অনুযায়ী, অমিত নন্দ জানিয়েছেন সুপারমার্কেটে উপস্থিত জনতা আর্তনাদ করার শুরু করে দিয়েছিল। কয়েকজন তাঁকেও বিল্ডিং থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। কিন্তু তখনই তাঁর চোখ এক আহত মহিলার উপর পড়ে, যিনি সাহায্যের জন্য কাতর আবেদন জানাচ্ছিলেন। এরপর অমিত সেখান থেকে পালানোর বদলে মহিলার সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নেন আর হামলাকারীর সঙ্গে লড়াই শুরু করেন।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, অমিত সেখানে থাকা এক ব্যক্তির থেকে লাঠি নেয় আর ভয়ডরকে ভুলিয়ে হামলাকারীর উপর হামলা করে দেয়। হামলাকারী ভাবতেই পারেনি যে, তাঁর সঙ্গে এমন কিছু হবে। বেশ কিছুক্ষণ হামলাকারীর উপর একের পর এক হামলা করতে থাকে অমিত। এরপর এক পুলিশ কর্মী হামলাকারীর এনকাউন্টার করে। অমিত যদি সেই মুহূর্তে এই সাহস না দেখাত, তাহলে হামলাকারী আরও কয়েকজন নিরীহ মানুষের উপর হামলা করত।

অমিত মিডিয়াকে জানায়, হামলাকারীর হাতে বড়সড় একটি চাকু ছিল, আর সে বারবার ধর্মীয় স্লোগান দিচ্ছিল। পুলিশের গুলিতে হামলাকারীর মৃত্যুর পর অমিত আহতদের সাহায্য করেন। অমিত সুপারমার্কেট থেকে তোয়ালে আর ন্যাপকিন নিয়ে আহতদের রক্ত বেরিয়ে যাওয়া বন্ধ করার চেষ্টা করেন। এই দুঃসাহসিক কাজের জন্য চারিদিকে অমিতের প্রশংসা হচ্ছে।

মরার আগে ধার্মিক হামলাকারী ছয় জনকে আহত করেছিল। তাঁদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। হামলাকারী শ্রীলঙ্কার নাগরিক বলে জানা গিয়েছে। সে ২০১১ সালে শ্রীলঙ্কা থেকে আমেরিকায় গিয়েছিল। জঙ্গি গতিবিধির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে সে জেলেও গিয়েছিল। হামলাকারী পুলিশের নজরেই ছিল, কিন্তু এরপরেও সে হামলা করতে সক্ষম হয়।

Related Articles

Back to top button