Press "Enter" to skip to content

সরকারি টাকায় কোরআন পড়ানো হবেনা! ফের বিস্ফোরক মন্তব্য অসমের শিক্ষা মন্ত্রীর

শেয়ার করুন -

গুয়াহাটিঃ অসমের (Assam) শিক্ষা মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা (Himanta Biswa Sarma) কুরআন পড়ানো নিয়ে বড় বয়ান দিয়েছেন। উনি বলেছেন, সরকারি টাকায় কুরআন পড়ানো হবে না। এর সাথে সাথে তিনি বলেন, যদি সরকারি টাকায় কোরআন পড়ানো যেতে পারে তাহলে গীতা আর বাইবেল কেন পড়ানো হবে না? হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, ‘আমার হিসেবে সরকারি টাকায় কোরআন পড়ানো সম্ভব নয়। যদি আমরা এমন করি, তাহলে আমাদের বাইবেল আর গীতা দুটোকেই সরকারি টাকায় পড়ানো উচিৎ। উনি বলেন, আমরা শিক্ষায় অভিন্নতা আনতে এবং এই প্রথা বন্ধ করতে চাই।

অসমের শিক্ষা মন্ত্রী বলেন, ‘রাজ্য সরকার দ্বারা চালিত সমস্ত মাদ্রাসা গুলোকে নিয়মিত স্কুলে বদলে ফেলা হবে, অথবা মাদ্রাসা শিক্ষকদের রাজ্য সঞ্চালিত স্কুলে ট্র্যান্সফার করা হবে এবং মাদ্রাসা গুলোকে বন্ধ করে দেওয়া হবে। আগামী নভেম্বর মাসে এই নিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে।

শর্মা বলেন, অনেক মুসলিম ছেলে ফেসবুকে হিন্দু নামের আইডি বানায় আর মন্দিরের সামনে দাঁড়িয়ে ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে। আর এই করে তাঁরা হিন্দু মেয়েদের প্রেমের জালে ফাঁসিয়ে তাঁদের বিয়ে করে। বিয়ের পর জানা যায় যে, হিন্দু মেয়েটা না জেনেশুনে অনেক বড় ভুল করেছে। তিনি বলেন, এটা কোনও বিয়ে না, এটা সম্পূর্ণ জালিয়াতি মামলা।

উনি বলেন, রাজ্য সরকার কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী পাঁচ বছরে আমরা এটা দেখার চেষ্টা করব যে, কোনও হিন্দু মেয়েকে যেন ওঁরা স্পর্শ না করতে পারে। উনি এই নিয়ে কড়া আইন আনারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।