Press "Enter" to skip to content

বড় খবরঃ কমলেশ তিওয়ারির পর উত্তরপ্রদেশে আরও এক হিন্দু নেতাকে প্রকাশ্যে হত্যা করল দুষ্কৃতীরা!

শেয়ার করুন -

উত্তর প্রদেশের (Uttar Pradesh) রাজধানী লখনউতে অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার (Akhil Bharatiya Hindu Mahasabha) রাজ্য সভাপতি রনজিত বচ্চনকে (Ranjeet Bachchan) প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি মেরে হত্যা করল দুষ্কৃতীরা। রাজধানী লখনউ এর জনবসতি পূর্ণ এলাকা হজরতগঞ্জে রনজিত বচ্চনের হত্যার পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। আরেকদিকে, রনজিত এর ভাইয়ের শরীরেও গুলি লাগে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, রবিবার সকাল প্রায় ছয়টা নাগাদ হিন্দু মহাসভার সভাপতি রনজিত বচ্চন নিজের ভাইয়ের সাথে মর্নিয় ওয়াকে বেরিয়েছিলেন। হজরতগঞ্জ এলাকায় সিডিআরআই এর কাছে বাইকে করে দুষ্কৃতীরা এসে তাঁদের উপর এলোপাথাড়ি গুলি চালায়।

দুষ্কৃতীরা হিন্দু নেতার মাথায় গুলি মারে, ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় হিন্দু নেতা রনজিতের। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে রনজিতের ভাইয়ের গায়েও গুলি লাগে। গুলি মারার পর বাইকে করে আসা দুষ্কৃতীরা সহজেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছেছে। হিন্দু নেতা রনজিত বচ্চনের দেহ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। রনজিত বচ্চন হজরতগঞ্জের ওসিআর বিল্ডিংয়ের বি ব্লকে থাকতেন। তিনি গোরখপুরের বাসিন্দা।

প্রাথমিক তদন্তে জানা যায় যে, রনজিত তাঁর ভাইয়ের সাথে সকালে মর্নিংওয়াকে বেরিয়েছিলেন। গ্লোব পার্ক থেকে বেরনোর সময় বাইকে করে দুষ্কৃতীরা এসে ওনার উপর হামলা করে দেয়। গুলি লাগার কারণে ওনার ভাইও আহত হন। রনজিতের ভাইয়ের হাতে গুলি লেগেছে। তাঁকে আহত অবস্থায় ট্রমায় ভর্তি করানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছান পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে।