নতুন খবরভারতবর্ষ

কর্ণাটক বার অ্যাসোসিয়েশনে দেশ বিরোধী স্লোগান দেওয়া কাশ্মীরি ছাত্রদের হয়ে আইনি লড়াই না লড়ার প্রস্তাব পাস!

ের () হুবলি এর একটি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে তিন () পাকিস্তানের সমর্থনে স্লোগান দিয়ে গ্রেফতার হয়েছিল কিছুদিন আগে। এবার ের ে () ওই কাশ্মীরি ছাত্রদের পক্ষে আইনি লড়াই না লড়ার প্রস্তাব পাস হল।

যদিও এই প্রস্তাব পাস হওয়া পর কর্ণাটক হাইকোর্ট হুবলি বার অ্যাসোসিয়েশনকে ধমক দিয়েছে। হাই কোর্ট বলেছে, ২৬/১১ এর নৃশংস হত্যাকাণ্ডের দোষী আজমল কাসভকেও নিজের আইনি লড়াই লড়ার জন্য ছাড় দেওয়া হয়েছিল।উল্লেখ্য হুবলি বার অ্যাসোসিয়েশন একটি প্রস্তাব পাস করে, যেখানে দেশদ্রোহ এর অভিযোগে অভিযুক্ত তিন কাশ্মীর ছাত্রদের হয়ে আইনি লড়াই না লড়ার প্রস্তাব পাস হয়।

যদিও, কর্ণাটক হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি এই বিষয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, যদি এরকম করা হয় তাহলে বিচার বিভাগের মুখ কি করে রক্ষা হবে? এখানে তো আজমল কাসভকেও তাঁর আইনি লড়াই লড়তে দেওয়া হয়েছিল।

অভিযোগ, ওই তিনজন কাশ্মীরি ছাত্র নিজের হোস্টেল রুমে পাকিস্তানের উপর একটি লেখা গান গাইছিল, আর পাকিস্তান জিন্দাবাদের স্লোগান দিয়েছিল। এই গান শুরু হওয়ার আগে বাসিত নামের এক ছাত্র বলে, আমার নাম বাসিত আমি কাশ্মীরের সাপোরে থাকি। এরা আমার বন্ধু আমির আর তালিব। আমরা এখানে ঠিক আছি ইনশাল্লাহ। কোন চিন্তা করার দরকার নেই, এরপর তাঁরা পাকিস্তানের প্রশংসায় গান করে আর পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান দেয়।

Back to top button
Close