Press "Enter" to skip to content

র‍্যালি বের করে রাম মন্দিরের জন্য চাঁদা সংগ্রহ অভিযানে নামল মুসলিমরা

শেয়ার করুন -

হায়দ্রাবাদঃ অয্যোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের জন্য গোটা দেশ জুড়ে চলছে নিধি সমর্পণ অভিযান। বাদ যায়নি মুসলিম বহুল শহর হায়দ্রাবাদও। হায়দ্রাবাদের ওল্ড সিটিতে রাম মন্দিরের জন্য চাঁদা সংগ্রহ করতে নিধি সমর্পণ অভিযান চালানো হয়েছে। ডবীরপুরা ফরহত নগর এলাকায় মুসলিমরাও রাম মন্দির নির্মাণের জন্য চাঁদা সংগ্রহ অভিযানে নেমেছে।

রাম মন্দির নির্মাণের জন্য চাঁদা সংগ্রহ করতে একটি র‍্যালি বের হয়। হায়দ্রাবাদের ওল্ড সিটির এই র‍্যালি এক মুসলিম নেতৃত্ব করেন। তায়বা আফিন্দি নামের ওই মুসলিম মহিলা বিজেপির কর্মী হিসেবে পরিচিত। ওনার ৩৫ বছরের ছেলে মির্জা আফিন্দি এখন ব্যবসায়ী, আর তিনি রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের মুসলিম রাষ্ট্রীয় মঞ্চের সাথে যুক্ত।

গত বছর গ্রেটার হায়দ্রাবাদ পুরসভার নির্বাচনে ডবীপুরা ওয়ার্ড থেকে বিজেপির টিকিটে লড়া একমাত্র প্রার্থী ছিলেন তিনি। আফিন্দির পরিবারের সাথে বিজেপি আর শিবসেনার অনেক বছরের সম্পর্ক।

সম্প্রতি গুজরাটের পাটনে এক মুসলিম ডাক্তার দম্পতি রাম মন্দির নির্মাণের জন্য ১.৫১ লক্ষ টাকা দান করেছেন। জেনারেল সার্জেন ডঃ হামিন মন্সুরি আর ওনার স্ত্রী মুমতাজ মন্সুরি রাম মন্দিরের জন্য টাকা দান করে বলেছিলেন যে, তাঁরা মানবতাকেই সবথেকে বড় ধর্ম আর সম্পর্ক হিসেবে মানেন। মন্সুরি দম্পতি কয়েকবছর আগে অয্যোধ্যায় রামলালা মন্দিরেও গিয়েছিলেন। এই দুজনেই পেশায় ডাক্তার। জানিয়ে রাখি, শুধুমাত্র গুজরাট থেকেই রাম মন্দির নির্মাণের জন্য এখনো পর্যন্ত ৩০ কোটি টাকা দান সংগ্রহ করা হয়েছে।

বলে রাখি, অয্যোধ্যায় ভব্য রাম মন্দির নির্মাণের জন্য গোটা দেশেই নিধি সমর্পণ অভিযান চালানো হচ্ছে। এই অভিযানের প্রতি মানুষকে সচেতন করতে বিজেপি ‘জন জাগরণ অভিযান” চালাচ্ছে। ১ ফেব্রুয়ারি থেকে দিল্লীর ৪৩ লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছানোর লক্ষ্য মাত্রা রাখা হয়েছে।

এর সাথে সাথে বিজেপি দ্বারা এই দাতাদের সন্মানিত করার জন্য গতকাল ২৪ জানুয়ারি একটি কার্যক্রম করা হয়েছিল। এই কার্যক্রমে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও উপস্থিত ছিলেন।