Press "Enter" to skip to content

চরম বিপদে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, দেশ দখলে নিতে চলেছে সেনা

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ পাকিস্তানের (Pakistan) নেতৃত্বে আনঅফিসিয়ালি হলেও সেনার শাসন শুরু হয়ে গেছে। আর এর প্রধান কারণ হল দেশে ইমরান খানের (Imran Khan) ক্রমশ্য হ্রাস পাওয়া জনপ্রিয়তা। জানিয়ে দিই, পাকিস্তানের নেতৃত্বে সেনার শাসন নতুন কোন ঘটনা না। পাকিস্তানের ইতিহাসের কথা বললে, এর আগেও বহুবার সেনাই দেশ চালিয়েছে। আর সবথেকে বড় কথা হল, দেশের কোন প্রধানমন্ত্রীই এখনো পর্যন্ত সম্পূর্ণ পাঁচ বছর রাজত্ব করতে পারেন নি।

এই সময় পাকিস্তানে এক ডজনের বেশি প্রাক্তন এবং বর্তমান সেনা আধিকারিক পাকিস্তানের প্রধান সরকারি পদে বিরাজমান। সরকারি হাওয়াই পরিষেবা, বিদ্যুত নয়ন্ত্রক এবং রাষ্ট্রীয় স্বাস্থ্য সংস্থার মতো উচ্চ পদে পাকিস্তানি সেনার প্রাক্তন এবং বর্তমান আধিকারিকরা বসে আছেন।

এই তিনটি পদের মধ্যে দুটি পদে সেনার আধিকারিকদের মোতায়েন গত দুই মাসে করা হয়েছে। উল্লেখ্য, সেনা সরকারে দখলআন্দাজি করছে আর সেটার প্রধান কারণ হল, দেশে ইমরান খানের হ্রাস পেতে থাকা জনপ্রিয়তা।

ভেঙে পড়া অর্থনীতি, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি আর করোনার মতো বৈশ্বিক মহামারীর কারণে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান চরম সমালোচনার সন্মুখিন হয়েছে। এছাড়াও কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে ব্যর্থতার জন্যও ইমরান খানের মুখ কালো হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে ইমরান খানের সরকারে সেনার সমর্থন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সেনা সংসদের ৪৬ শতাংশ আসনে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করে রেখছে। পাকিস্তানের ইতিহাসে সেনাই দেশের নেতৃত্বে ছিল।