Press "Enter" to skip to content

চীন আমাদের টাকা দেয়, তাই আমরা উইঘুর মুসলিমদের নিয়ে কিছু বলিনা! স্বীকারোক্তি ইমরান খানের

শেয়ার করুন -

পাকিস্তানের (Pakistan) প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan) আরও একবার কাশ্মীর (Kashmir) আর ৩৭০ ধারা (Article 370) তুলে দেওয়া নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। জার্মান সংবাদ সংস্থা DW-TVকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে ইমরান খান কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে ভারত সরকারকে আক্রমণ করেন। আরেকদিকে, চীনে উইঘুর মুসলিম ইস্যু এবং অন্যান্য ইস্যু নিয়েও আলোচনা করেন তিনি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী DW কে জানায়, ‘একটা সবথেকে বড় সত্য হল, বিশ্ব কখনো কাশ্মীরে নজরই দেয়নি। হংকং প্রদর্শন টিভিতে দেখানো হয়েছে, কিন্তু কাশ্মীরে যা হচ্ছে, সেটার কথা কেও বলেনা।”

 

পাক অধিকৃত কাশ্মীর (POK) নিয়ে ইমরান খান জোর গলায় বলেন যে, সেখানে সবকিছু ঠিক আছে। ইমরান খান বলেন, ‘আমরা অবজার্ভার্সদের টিম কাশ্মীরে ডাকতে পারি। আমাদের এখানে সততার সাথে নির্বাচন হয়, কিন্তু ভারতের অংশে থাকা কাশ্মীরে এসব হয়না। সেখানে কেউ যেতে পারেনা, আর না সেখানকার পরিস্থিতি ঠিক আছে।”

DW এর সাংবাদিক যখন ইমরান খানকে জিজ্ঞাসা করেন যে, আপনি ভারতের এত বিরোধিতা করেন কিন্তু উইঘুর মুসলিমদের (uighur muslim) উপর হওয়া অত্যাচার নিয়ে চুপ, এর কারণ কি? তখন ইমরান খান বলেন, ‘ভারতে যেটা হচ্ছে সেটার তুলনা চিনের উইঘুর মুসলিমদের সাথে হয়না। এছাড়াও, চীন আমাদের খুব ভালো বন্ধু। তাঁরা আমদের দেশকে টাকা দিয়ে আর্থিক সঙ্কট থেকে বের করার চেষ্টা করেছে। আর এই জন্য আমরা চিনের সংবেদনশীল ইস্যু গুলোতে ব্যাক্তিগত আর সার্বজনীন কোন ভাবেই কথা বলিনা।”

DW এর সাংবাদিক যখন ইমরান খানকে জিজ্ঞাসা করেন যে, আপনি একদিকে কাশ্মীরের স্বাধীনতা কথা বলছেন আরেকদিকে PoKতে ওঠা পাকিস্তান বিরোধী আওয়াজ আর প্রদর্শন বন্ধ করার চেষ্টা করছেন। তখন ইমরান খান বলেন, ‘আমরা রেফারেন্ডাম করার জন্য প্রস্তুত। এটা কাশ্মীরের মানুষরাই ঠিক করবে যে, তাঁদের স্বাধীন থাকবে না পাকিস্তানের সাথে থাকবে। ইউরোপিয়ান ইউনিয়ান আর জার্মানি ভারতকে আটকাতে পারে।”