Press "Enter" to skip to content

নতুন ষড়যন্ত্র পাকিস্তানের! অভিনন্দন বর্তমানের নতুন একটি এডিটেড ভিডিও প্রকাশ করল ইমরান সরকার

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ দুই বছর আগে ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় সীমান্তে ঢোকা পাকিস্তানি লড়াকু বিমান গুলোকে তাড়াতে ভারতীয় উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান পাকিস্তানের সীমান্তে ঢুকে পড়েছিলেন। ওনাকে দু’দিন পর পাকিস্তানের থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে আসা হয়েছিল। পাকিস্তানি মিডিয়া অনুযায়ী, দু’বছর পর অভিনন্দন বর্তমানের একটি নতুন ভিডিও জারি করা হয়েছে, যেটা এর আগে কেউ কখনো দেখিনি।

নতুন এই ভিডিওতে অভিনন্দনকে দুই দেশের মধ্যে শান্তি স্থাপনের কথা বলতে দেখা যাচ্ছে। ওনাকে এও বলতে দেখা যাচ্ছে যে, দুই দেশের মধ্যে কোনও পার্থক্য খুঁজে পাননি তিনি। যদিও, এটা এখনও জানা যায়নি যে এই ভিডিও পুরোনো না নতুন। আর ভিডিওতে এডিটিং দেখে ভিডিওর সত্যতা নিয়ে আশঙ্কা জাহির হচ্ছে।

ভিডিওতে অভিনন্দকে বলতে শোনা যাচ্ছে যে, ‘উপর থেকে প্যারাসুটে করে নীচে আসার সময় আমি দুটি দেশই দেখেছি। দুই দেশের মধ্যে আমি কোনও পার্থক্য খুঁজে পাইনি। দুই দেশই সুন্দর। যখন আমি নীচে নামি তখন আমি বুঝতে পারিনি যে আমি পাকিস্তানে আছি না ভারতে। দুই দেশই একই রকম। আমি গুরুতর আহত ছিলাম আর নড়াচড়াও করতে পারছিলাম না।”

ভিডিওতে অভিনন্দন বলেন, ‘আমি এটা জানার চেষ্টা করছিলাম যে, আমি এখন কোথায় আছি? যখন আমি জানতে পারলাম যে আমি নিজের দেশে নেই, তখন আমি পালানোর চেষ্টা করি। আমার পিছনে অনেক কয়েকজন ছিল। তাঁরা আমার থেকে সেই মুহূর্তে অনেক শক্তিশালী ছিল আর তাঁরা আমাকে ধরতে চাইছিল।”

অভিনন্দন বলেন, ‘তখনই পাকিস্তানি আর্মির দুজন জওয়ান চলে আসে, আর আমাকে জনতার হাত থেকে উদ্ধার করে। পাক জওয়ানরা আমাকে উদ্ধার করে তাঁদের শিবিরে নিয়ে যায় আর আমাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। এরপর আমাকে হাসপাতালেও নিয়ে যায়।” অভিনন্দন বলেন, ‘কাশ্মীরিদের সঙ্গে কি হচ্ছে, সেটা না আমি জানি আর না আপনি। আমাদের শান্তিতে ভাবনা চিন্তা করা দরকার।”

বলে রাখি, এর আগেও অভিনন্দন বর্তমানকে নিয়ে পাকিস্তান ভিডিও শেয়ার করেছিল। সেখানে ওই ভিডিওতে অসংখ্য কাটছাঁট দেখা গিয়েছিল। ভিডিও দেখে বোঝা গিয়েছিল যে, পাকিস্তান অভিনন্দন বর্তমানকে দিয়ে নিজেদের প্রশংসা করাচ্ছে। আর এটাই স্বাভাবিক। এবার পাকিস্তান নতুন একটি ভিডিও ছেড়ে ভারতের উপর চাপ রাখার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।