আন্তর্জাতিকনতুন খবর

পাকিস্তানকে বাঁচাতে সৌদি প্রিন্সের দরবারে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে ইমরান খান, মিলল বড় সাহায্য

নয়া দিল্লিঃ বর্তমানে পাকিস্তান (Pakistan) ব্যাপক আর্থিক সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি সমস্ত রেকর্ড ছাড়িয়ে গিয়েছে, অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে। বিদেশি মুদ্রা ভাণ্ডার প্রায় খালি আর পাকিস্তানের জনতা সরকারের উপর চরম চটে রয়েছে। এই সময়ে দেশকে সংকট থেকে বের করতে ইমরান খান (Imran Khan) আবারও হাত পাতলেন। এবার তিনি সৌদি আরবের (Saudi Arabia) প্রিন্সের সামনে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে যান। পাকিস্তানের এমন অবস্থা দেখে সৌদি আরবও সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বড় ঘোষণা করেছে।

মিডিয়া রিপোর্টস অনুযায়ী, সৌদি আরবের ফান্ড ফর ডেভলপমেন্টের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে তাঁরা পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকে তিন বিলিয়ন মার্কিন ডলার জমা করছে। সংকটে পড়া পাকিস্তানকে তাঁদের বিদেশি মুদ্রা ভাণ্ডারের অভাব পূরণ করতেই এই ঘোষণা করেছে সৌদি আরব। রিপোর্টে এও বলা হয়েছে যে, সৌদি আরবের তরফ থেকে পাকিস্তানকে এবছর তেলের উৎপাদ বাণিজ্যের অর্থ সাহায্যের জন্য ১.২ বিলিয়ন ডলার দেওয়া হবে। পাকিস্তানের সম্প্রচার মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী আর বিদ্যুৎ মন্ত্রী আহমেদ আজাহার সৌদির থেকে পাওয়া এই সাহায্যের কথা স্বীকার করেছেন।

২৩ থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইমরান খানের সৌদি সফর অবশেষে সফল হল। কাঙাল পাকিস্তানে আশার আলো ফিরিয়ে আনতে তিনি সৌদি আরবে গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়ে তিনি সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মহম্মদ বিন সলমান বিন আব্দুলাজিজ আল সৌদ-র সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। ইমরান খান সৌদির রাজধানী রিয়াদে মিডিল ইস্ট গ্রিন ইনিশিয়েটিভ সম্মেলনেও অংশ নিয়েছিলেন। ইমরান খানের এই সফরের পরই সৌদি পাকিস্তানের জন্য আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করে।

তবে, এর আগে পাকিস্তানের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্কে ফাটল ধরেছিল। আসলে, সৌদি ভারতের বিরুদ্ধে কাশ্মীর ইস্যুতে বয়ানবাজি করবে না বলে জানিয়েছিল। এরপর পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি আর সৌদি আরবের মধ্যে চুলোচুলি বেঁধে যায়। আর এই কারণে দুই দেশের সম্পর্কে ফাটলও ধরে।

Related Articles

Back to top button