নতুন খবরভারতীয় সেনা

যুদ্ধকালীন তৎপরতায় চিন সীমান্তের কাছে ভারত বানিয়ে ফেলল সেনার বিমান বন্দর, মোতায়েন হল বোফোর্সও

ভারত (India) আর চিনের (China) মধ্যে বিগত একমাস ধরে লাদাখ (Ladakh) সীমান্তে উত্তেজনা পারদ চড়েছে। এই সমস্যা সমাধান করার জন্য দুই দেশের মধ্যে আলোচনা চলছে। কিন্তু ভারত আর কোনভাবেই ছাড়তে রাজি নয়। আর এই কারণে পরিস্থিতির মোকাবিলার জন্য সবদিক থেকে প্রস্তুত থাকছে ভারত। লাদাখ সীমান্তের পাশে ভারত দ্রুত গতিতে এয়ারস্ট্রিপ বানাচ্ছে। এছাড়াও সীমান্তে বোফোর্স এবং আর্টিলারি গান মোতায়েন করা হয়েছে ভারতের পক্ষ থেকে।

অনন্তনাগের পাশে NH-44 এ এমার্জেন্সি এয়ারস্ট্রিপ বানাচ্ছে ভারত। কোনরকম আপাতকালীন পরিস্থিতিতে যুদ্ধ বিমান এবং অন্য বিমান গুলো যাতে সহজেই অবতরণ করানো যায় সেটার প্রস্তুতি নিয়েছে ভারত।

উল্লেখ্য, LAC এর পাশে চিনও কিছু প্রস্তুতি নিয়েছে। সেখানে হাতিয়ারের সাপ্লাই বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আরেকদিকে ভারত প্রায় ৬০ টি বোফোর্স আর্টিলারি গান লাদাখের পাশে ফরোয়ার্ড পজিশনে পাঠিয়ে দিয়েছে। ভারতীয় সেনার তরফ থেকে বলা হয়েছে যে, তাঁরা চিনের সাথে এই বিতর্ক থামাতে চায়, তবে চিনের কোন হুমকি সহ্য করা হবে না আর সমস্ত রকম পরিস্থিতির সাথে মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত তাঁরা।

বায়ুসেনা দ্বারা দক্ষিণ কাশ্মীরে NH-44 এর পাশে এয়ারস্ট্রিপ বানানো হচ্ছে। এই এয়ারস্ট্রিপের দৈঘ্য প্রায় তিন কিমি। চিনের সাথে জারি উত্তেজনার কারণে প্রায় দুদিন আগে থেকে এই এয়ারস্ট্রিপের নির্মাণকার্য শুরু করে দিয়েছিল ভারত। লকডাউনের মধ্যে নির্মাণ কাজ শুরু করার জন্য জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে স্পেশ্যাল অর্ডার নেওয়া হয়েছে।

আপনাদের জানিয়ে দিই, মে মাসের শুরু থেকেই ভারত আর চিনের সেনা লাদাখে সামনা সামনি চলে আসে। দুই দেশের সৈনিকের মধ্যে হাতাহাতিও হয়। এরপর চিন ওই এলাকায় সেনার সংখ্যা বাড়িয়ে দেয়। আরেকদিকে, ভারতও নাছোড়বান্দা। চিনের সাথে মোকাবিলার জন্য ভারতও সীমান্তের কাছে প্রচুর সেনা মোতায়েন করে।

যদিও শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, চিনের সেনা লাদাখ সীমান্ত থেকে দুই কিমি পিছু হটেছে।

Related Articles

Back to top button