নতুন খবরভারতবর্ষ

বছরের শুরুতেই ভারতীয়দের জন্য দারুণ খবর, গোটা বিশ্বে সম্মান বাড়ল ভারতের

নয়া দিল্লিঃ সম্প্রতি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নিজের দেশকে ভারতের থেকে বেশি উন্নত, অর্থনৈতিক দিক থেকে স্বাবলম্বী এবং ভারতের থেকে বেশি খুশির দেশ বলেছিলেন। যদিও, বাস্তবতা অন্য কিছু। পাকিস্তানি পাসপোর্টটি টানা তৃতীয় বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ভ্রমণের জন্য চতুর্থ সবচেয়ে খারাপ পাসপোর্ট হিসাবে স্থান পেয়েছে। হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স ২০২২-র প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে বৃহস্পতিবার স্থানীয় গণমাধ্যম এ খবর জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, পাকিস্তানি পাসপোর্টধারীদের ভিসা-মুক্ত বা ভিসা-অন-অ্যারাইভাল অ্যাক্সেস রয়েছে বিশ্বের মাত্র ৩১টি দেশে। হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স হল বিশ্বের সমস্ত পাসপোর্টের র‌্যাঙ্কিং। এতে পাকিস্তানের অবস্থান ১০৮তম স্থানে।

দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনালের রিপোর্ট অনুযায়ী, হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্স ফার্মের “হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স” 2006 সাল থেকে নিয়মিতভাবে বিশ্বের সবচেয়ে ভ্রমণ-বান্ধব পাসপোর্টগুলি পর্যবেক্ষণ করছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, “COVID-19 মহামারী চলাকালীন ভ্রমণের বাধা বৃদ্ধির ফলে সূচকের ১৬ বছরের ইতিহাস জুড়ে ব্যাপক বৈশ্বিক গতিশীলতার ব্যবধান দেখা দিয়েছে।”

সূচকটি সাময়িক বিধিনিষেধ বিবেচনা করে না। সূচকে, জাপান এবং সিঙ্গাপুরের পাসপোর্ট সবচেয়ে বেশি ১৯২টি দেশে ভিসা ছাড়া ভ্রমণ করতে সক্ষম। জাপান এবং সিঙ্গাপুরের পাসপোর্ট আফগান পাসপোর্টের থেকে ১৬৬ বেশি ভিসা ছাড়া ভ্রমণ সক্ষম। আপনাদের বলে দিই যে, আফগানিস্তান এই সূচকের সবথেকে নীচে রয়েছে, আফগান নাগরিকরা অগ্রিম ভিসার প্রয়োজন মাত্র ২৬টি দেশে পৌঁছাতে পারে। আপনাদের বলে দিই যে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলি বরাবরের মতো তালিকার শীর্ষে রয়েছে।

অন্যদিকে ভারতের পাসপোর্টধারকদের জন্য সুখবর। পাসপোর্ট গ্লোবাল র‍্যাঙ্কিংয়ে অনেকধাপই উপরে উঠে এল ভারত। গত র‍্যাঙ্কিংয়ে এই তালিকায় ৯০ তম স্থানে ছিল ভারত, কিন্তু এবার সাত ধাপ এগিয়ে এসে ৮৩ নম্বর জায়গা দখল করেছে ভারতীয় পাসপোর্ট। বিশ্বের ৬০টি দেশে ভারতীয়রা এখন থেকে ভিসা ফ্রি বা ভিসা অন্য অ্যারাইভাল-র সুবিধা পাবে।

Related Articles

Back to top button