নতুন খবরভারতবর্ষভারতীয় সেনা

থরথর করে কাঁপবে শত্রুরা, উন্নত প্রযুক্তির এক অত্যাধুনিক হাতিয়ার এল ভারতের হাতে

নয়া দিল্লিঃ করোনা মহামারীর কারণে কয়েক মাস বিলম্বের পর এবার আরও একবার ভারত (India) নিজেদের প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রকে মজবুত করার প্রচেষ্টা জারি হয়েছে। আর সেই সূত্রেই ইসরায়েল (Israel) লাদাখে (Ladakh) চীনের (China) গতিবিধির উপর নজর রাখার জন্য ভারতীয় সেনাকে অত্যাধুনিক হেরন ড্রোন (IAI Heron) প্রদান করল। সূত্র অনুযায়ী, ভারতের কাছে ইসরায়েলের যেই ড্রোনগুলো এখন রয়েছে সেগুলোর থেকে অনেক বেশি উন্নত এই নতুন হেরন ড্রোন। এছাড়াও এর অ্যান্টি-জ্যামিং করার ক্ষমতা আগের থেকে অনেক বেশি।

এই ড্রোনগুলি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন সরকারের দ্বারা প্রতিরক্ষা বাহিনীকে দেওয়া জরুরি আর্থিক ক্ষমতার অংশ হিসাবে অধিগ্রহণ করা হয়েছে। এর অধীনে, প্রতিরক্ষা বাহিনী চীনের সাথে চলমান সীমান্ত সংঘর্ষের মধ্যে নিজেদের যুদ্ধের সক্ষমতা উন্নত করতে 500 কোটি টাকার সরঞ্জাম এবং সিস্টেম কিনতে পারে।

  • ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম জানায়, হেরন মার্ক-২ ড্রোনটি বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত প্রযুক্তিতে সুসজ্জিত।
  • এই ড্রোনগুলি তাদের সাথে বিভিন্ন ধরণের পেলোড বহন করতে সক্ষম।
  • এই ড্রোন বিমানটিতে শক্তিশালী Rotex 915 IS ইঞ্জিন লাগানো আছে যা এটিকে 10 হাজার মিটার উচ্চতায় উড়তে সাহায্য করে।
  • হেরন মার্ক-২ ড্রোনটি পূর্বে নির্মিত হেরন ইউএভির একটি উন্নত মডেল।
  • এর সর্বোচ্চ গতি প্রতি ঘন্টায় 140 নট।
  • এখন এর সেন্সর বড় করা হয়েছে এবং উন্নত করা হয়েছে যা এটিকে অত্যন্ত বিপজ্জনক করে তুলেছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী তাদের ক্যাম্পে বসে শত্রুদের অবস্থান খুঁজে বের করবে।

লক্ষণীয় বিষয় হল যে 2019 সালেও বালাকোট বিমান হামলার পরে এই ড্রোনগুলি ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছে উপলব্ধ করা হয়েছিল। একই সময়ে, একই সুবিধা ব্যবহার করে, ভারতীয় নৌবাহিনী দুটি প্রিডেটর ড্রোনও লিজ নিয়েছে যা আমেরিকান ফার্ম জেনারেল অ্যাটমিক্স থেকে নেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button