নতুন খবর

“এটা পরাধীন ভারত নয়”- ব্রিটেনকে কড়া ভাষায় শুনিয়ে দিল মোদী সরকার

আজকের দিনে দাঁড়িয়ে ভারত বিশ্বের একটা শক্তিশালী দেশ। একই আর্থিক দিক থেকে ভারতের উন্নতি এতটাই তীব্র গতিতে হচ্ছে যে ভারতকে আগামী দিনের ‘সুপার পাওয়ার’ বলেও দাবি করা হচ্ছে। তবে এখনও বিশ্বে এমন কিছু দেশ রয়েছে যারা নিজেদেরকে এ গ্রেড দেশ এবং ভারতকে পিছিয়ে পড়া দেশ মনে করে থাকে।

ভারতের উপর বৈষম্যমূলক আচরণ ব্রিটেনের

সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা আন্তর্জাতিক মহল থেকে সামনে এসেছে। আসলে ইংল্যান্ড ভারতকে উদাসীন দেশ মনে করে ভারতীয়দের উপই বৈষম্যমূলক নীতি লাগু করেছে। আর এই ঘটনায় ভারত তীব্রভাবে প্রতিক্রিয়া দিয়েছে। ব্রিটেনে বেশ কিছু নিয়ম লাভ হয়েছে সেই অনুযায়ী আমেরিকা ও ইউরোপের বেশ কিছু দেশের মানুষ জন যারা টিকা ইতিমধ্যে নিয়েছেন তারা ইংল্যান্ডে প্রবেশ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে বাইরে থেকে আগত নাগরিকদের আর নতুন করে কোন টেস্ট করাতে হবে না বা কোয়ারেন্টাইন নিতে হবে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে ব্রিটেনের যেসব দেশের নাম উল্লেখ করেছে তার মধ্যে আমেরিকা এবং ইউরোপের বেশ কিছু দেশে নাম রয়েছে। তবে এখানে ভারতের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে অর্থাৎ ভারতীয়রা টিকা নেওয়ার পরেও এর সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত থাকবে। সোজা ভাষায় ইংল্যান্ড আমেরিকা ও ইউরোপের দেশ গুলিকে দেশগুলির টিকা কে মান্যতা দিলেও ভারতের ঠিক আছে মান্যতা দেয়নি।

পাল্টা প্রতিক্রিয়া দিল ভারত

এই ঘটনার পর ভারতে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে এবং ঘটনার পর তদন্ত করার কথা জানিয়েছে। ভারত স্পষ্ট বলেছে, যে ভারতীয় নাগরিকদের সাথে বৈষম্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে যা মোটেও মেনে নেওয়া যাবে না। মোদী সরকারের এক উচ্চপদস্থ অধিকারীক বলেছেন, এখন ভারত পরাধীন নেই যে যে কোন দেশ ভারতীয়দের উপর বৈষম্যমূলক আচরণ করবে আর আমাদের তা মেনে নিতে হবে। ভারতের এই কড়া প্রতিক্রিয়া এরপর এর প্রভাব ইংল্যান্ডের পর দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। তাজা খবর অনুযায়ী ব্রিটেন তাদের নিয়মের ওপর পরিবর্তন আনতে চলেছে এবং ওই লিস্টে ভারত দেশের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে চলেছে।

Related Articles

Back to top button