আন্তর্জাতিকনতুন খবরভারতবর্ষ

রুশ ইউক্রেনের টক্কর এখন অতীত! পাকিস্তানের মাটিতে পড়ল ভারতের সুপারসনিক মিসাইল

“বুদ্ধিমানের জন্য ইশারাই যথেষ্ট”-ভারতের (India) ডিফেন্স মিনিস্টার থেকে সম্প্রতি এক বার্তা আসার পর বিশেষজ্ঞরা একথা বলছেন। শুক্রবার পাকিস্তানের তরফ থেকে দাবি করা হয় যে পাকিস্তানের উপর সুপারসনিক মিসাইল দিয়ে হামলা করা হয়েছে। যদিও এই হামলা কোন দেশ করেছে তা নিয়ে পাকিস্তান কোন দাবী করতে পারেনি অন্যদিকে ভারতের পক্ষ থেকেও এই বিষয়ে সেই মুহূর্তে কোন মন্তব্য করা হয়নি।

অবশ্য এটা নিশ্চিত ছিল যে ভারত যদি এই হামলা করে থাকে তাহলে অবশ্যই ভারত তা স্বীকার করবে কারণ হামলা করে চুপ করে বসে থাকার দেশ ভারতে নয়। সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হোক বা এয়ারস্ট্রাইক প্রত্যেকটা ক্ষেত্রেই ভারত হামলার করার পর তা বুক ঠুকে বিশ্বের কাছে প্রকাশ করেছিল আর এক্ষেত্রেও যে ভারত তাই করবে তা নিশ্চিত মনে করা হচ্ছিল।

তবে এখন ভারতের ডিফেন্স মিনিস্ট্রির পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, পাকিস্তানের যে সুপারসনিক মিসাইল গিয়ে পড়েছে তা ভারত থেকেই নিক্ষেপ করা হয়েছিল। ভারতের ডিফেন্স মিনিস্ট্রির তরফে বলা হয়েছে ভুল করে ওই মিসাইল পাকিস্তানের গিয়েছে। ভারতের তরফে বলা হয়েছে পাকিস্তানের যে মিসাইল পড়েছে তা ভারতেরই এবং সেটা ভুল করে ফায়ার হয়েছে অতএব ভারত এর জন্য কোর্ট অফ ইনকয়েরি বসিয়েছে। ভারতের তরফে আরো বলা হয়েছে কিভাবে এত বড় ভুল হল তার তদন্ত করা হবে এবং খতিয়ে দেখা হবে।

তবে ডিফেন্স বিশেষজ্ঞরা এ নিয়ে একেবারে অন্য কথা বলছেন। ডিফেন্স বিশেষজ্ঞদের দাবি ভারত পুরো পরিকল্পনামাফিক এই ভুল করেছে। কারণ বেশিরভাগ মিসাইলের টেস্ট বঙ্গোপসাগরে হয়ে থাকে, তাহলে এই সুপারসনিক মিসাইল পাকিস্তানের গেল কি করে যদি ভুল হয় তাহলে সেই ভুল পাকিস্তানে সীমায় কেন ঘটবে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন ভারত এইরকম ভুল কোনভাবেই করতে পারে না আসলে পাকিস্তানের ডিফেন্স কতটা শক্তিশালী তা বুঝে নেওয়ার জন্যই ভারত এই ভুল করেছে।

জানিয়ে দি ভারতের এই সুপারসনিক মিসাইল পাকিস্তানের মাটিতে গিয়ে পড়েছে তথা পাকিস্তানের ডিফেন্স সিস্টেম এই মিসাইল কে কাউন্টার করতে সক্ষম হয়নি। লক্ষণীয় পাকিস্তানের মিসাইল পড়েছে তা বিনা ওয়ার হেডের ছিল অর্থাৎ এই মিলগুলি শুধুমাত্র টেস্টিং এর কাজে লাগে এই মিসাইল দিয়ে তেমন কোনও ক্ষতি সাধন হয় না।

Related Articles

Back to top button