Press "Enter" to skip to content

চিনকে চাপে রাখতে ভারতের নতুন কৌশল, এই প্রথমবার রাশিয়ায় শক্তি প্রদর্শন করছে ভারতের তিন সেনা

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ প্রথমবার ভারতের (India) তিন সেনার (Army) একটি দল ২৪ জুন রাশিয়ার (Russia) রাজধানী মস্কোর রেড স্কোয়ারে মার্চ করবে। ২০১৫ সালে শুধুমাত্র ভারতীয় স্থলসেনা এই প্যারেডে অংশ নিয়েছিল। এই অনুষ্ঠানের জন্য রাশিয়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে (PM Narendra Modi) আমন্ত্রণ পাঠিয়েছে।

যদিও করোনা ভাইরাসের মহামারীর কারণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন না। কিন্তু ভারতের তিন সেনা নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করবে এই অনুষ্ঠানে। আর এর ফলে রাশিয়ার সাথে গভীর সামরিক সম্পর্ক রাখা চিনের চিন্তা বাড়তে পারে। রাশিয়া প্রতি বছর ৯ মে ভিক্টরি ডে-এর প্যারেড আয়োজন করে। কিন্তু করোনার কারণে এই বছর এই আয়োজন করা সম্ভব হয়নি।

১৯৪৫ সালের হিটলারের জার্মানির আত্মসমর্পণ দিনের কথা মাথায় রেখে এই প্যারেড করা হয়। গত বছর ভ্লাদিভস্তকে সাথে সাক্ষাতের সময় রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে এই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ দিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অনুপস্থিতির ভরপাই করার জন্য কেন্দ্র সরকার জল, স্থল আর বায়ুসেনার ৭৫ থেকে ৮০ জন জওয়ানকে ১৯ জুন মস্কো পাঠাচ্ছে।

রাশিয়া এই বছরের প্যারেডের জন্য অনেক কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল, কারণ এই বছর বিজয় দিবসের ৭৫ তম বার্ষিকী। কূটনৈতিক সুত্র অনুযায়ী, ভারতের টিম প্যারেডে গ্রেট প্যাট্রিওটিক ওয়ারে ভারতীয় সেনার অবদানের কথা স্মরণ করে প্রদর্শন করবে।

চিনের সাথে রাশিয়ার গভীর সামরিক আর রাজনৈতিক সম্পর্ক আছে, আরেকদিকে ভারত আর চিনের মধ্যে বর্তমানে সীমান্ত বিবাদ নিয়ে চরম উত্তেজনা চলছে। এছাড়াও ভারত আর আমেরিকার সাথে সম্পর্ক আগের তুলনায় অনেক মজবুত। এবং চিন আর আমেরিকার সম্পর্কেও ফাটল ধরেছে। ভারত আর রাশিয়ার সম্পর্কও আগের থেকে অনেক দৃঢ়। আর সেই কারণে আমেরিকার আপত্তির পরেও ভারত রাশিয়ার সাথে S-400 মিসাইলের চুক্তি করেছিল। এই সমস্ত সমীকরণের কারণে ভারত-রাশিয়ার সম্পর্ক চিনের মাথায় চাপ ফেলতে পারে।