নতুন খবরভারতবর্ষ

বড়সড় সফলতা অর্জন করল ভারত, নতুন এই কীর্তি বুকে ভয় ধরাবে শত্রুদের

নয়া দিল্লিঃ উড়িষ্যার উপকুলে সারফেস-টু-সার্ফেস আঘাত হানতে সক্ষম কম দূরত্বের ব্যালিস্টিক মিসাইল ‘প্রলয়”-র (Pralay) সফল পরীক্ষণ করল ভারত (India)। প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (Defence Research and Development Organisation) দ্বারা বিকশিত সলিড-ফুয়েল, কমব্যাট মিসাইল ভারতীয় ব্যালিস্টিক মিসাইল প্রোগ্রামের ‘পৃথ্বী ডিফেন্স ভেহিক্যাল’-এর উপর ভিত্তি করে তৈরি।

এপিজে আবদুল কালাম দ্বীপ থেকে সকাল প্রায় সাড়ে দশটা নাগাদ এই মিসাইল উৎক্ষেপণ করা হয়। উৎক্ষেপণের পর মিসাইলটি নিজের লক্ষ্যে কি আঘাত হানে। নজরদারি সরঞ্জামের মাধ্যমে উপকূলরেখা থেকে এর উৎক্ষেপণ পর্যবেক্ষণ করা হয়। আঘাতের স্থানে মোতায়েন করা সেন্সরগুলিও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার যথার্থতা লক্ষ করেছে। ‘প্রলয়’ হল একটি সারফেস থেকে সারফেস মিসাইল যার রেঞ্জ ৩৫০-৫০০ কিলোমিটার। এবং এটি ৫০০-১০০০ কেজি ওজন বহন করতে সক্ষম।

ডিআরডিও-র আধিকারিক জানিয়েছেন যে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং ডিআরডিও এবং সংশ্লিষ্ট টিমকে এই সফল ট্রায়ালের জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি সারফেস-টু-সার্ফেস ক্ষেপণাস্ত্রের দ্রুত বিকাশ এবং সফল উৎক্ষেপণের জন্য ডিআরডিওর প্রশংসা করেছেন।

আধিকারিক বলেছেন যে, সচিব ডিডি R&D এবং চেয়ারম্যান DRDO, ডাঃ জি সতীশ রেড্ডি টিমের প্রশংসা করেছেন এবং বলেছেন যে ক্ষেপণাস্ত্রটি একটি নতুন প্রজন্মের সারফেস-টু-সার্ফেস ক্ষেপণাস্ত্র যা অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে সুসজ্জিত এবং এটি অন্তর্ভুক্ত করার জন্য তৈরি করা হয়েছে। এই ক্ষেপণাস্ত্রের অন্তর্ভুক্তি সশস্ত্র বাহিনীকে প্রয়োজনীয় গতি দেবে।

Related Articles

Back to top button