নতুন খবরভারতবর্ষ

এমন এক প্রোজেক্ট শুরু করছে ISRO, যার সামনে হার মানবে গোটা বিশ্ব! ভারতকে জানাবে স্যালুট

নয়া দিল্লিঃ ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ ইনস্টিটিউট (Indian Space Research Organisation) সম্প্রতি একটি আন্তঃনাক্ষত্রিক লক্ষ্যের দিকে অগ্রসর হতে চলেছে। ইসরো (ISRO) এমন একটি প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে, যার সাহায্যে হলিউডের (Hollywood) কল্প-বিজ্ঞানের (Sci-Fi) ছবিতে দেখানো কিছু ঘটনা বাস্তবেও সম্ভব করে যেতে পারে। এই পরীক্ষা ভবিষ্যতের পথে বড় পরিবর্তন আনতে সহায়ক হতে পারে।

ইসরোর পরিকল্পনা একটি আত্ম-ধ্বংসী মহাকাশযান প্রস্তুত করা। এই স্ব-ধ্বংসী রকেট হল স্ব-অদৃশ্য হয়ে যাওয়া উপগ্রহের মতো একটি বস্তু, যা ইসরো এইমুহূর্তে প্রস্তুত করতে ব্যস্ত। ইসরো তার গবেষণাকেন্দ্রে এমন ৪৬ টি বিস্ময় বস্তু প্রস্তুত করছে, যা সকলকে অবাক করে দেবে এবং সেই জিনিসগুলি সম্ভব হবে যা এখনও পর্যন্ত কল্পবিজ্ঞান ফিল্মে দেখা গেছে।

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থার চেয়ারম্যান ‘কে সিভান’ একটি নামি সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, বর্তমানে আমাদের কাছে যত রকেট আছে সেগুলি সবকটিই বিভিন্ন ধাতু দিয়ে তৈরি। একবার উৎক্ষেপণের পর সেগুলো আর কোনও কাজে লাগানো যায় না। বেশিরভাগ সময়ই সমুদ্রে ফেলে দেওয়া হয়।

তিনি আরও বলেছেন যে “মহাকাশে পৌঁছে তাদের উদ্দেশ্য সফল হলে সেগুলিকে ফিরিয়ে আনা যায় না। ফলে সেগুলি পরিণত হয় মহাকাশে জমে থাকা ধ্বংসাবশেষে।” তিনি বলেন যে ইসরোর পরবর্তী পরিকল্পনা হল এমন একটি প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করা, যার ফলে ওই বাতিল রকেটগুলি শূন্যেই নিজেদের ধ্বংস করে ফেলবে। এর ফলে মহাকাশে ধ্বংসাবশেষ কম জমবে এবং রকেট সমুদ্রে ফেলে সমুদ্রকেও দূষিত করার যে প্রক্রিয়া বাধ্য হয়েই চালাতে হয়, সেই প্রক্রিয়ার হাত থেকে রক্ষা করা যাবে সমুদ্র-কে।

Related Articles

Back to top button