নতুন খবরভারতবর্ষ

জামিয়ার সমর্থনে পোস্ট করেছিলেন জাভেদ আখতার! এক IPS এসে দিলেন মোক্ষম জবাব

দিল্লীর (Delhi) জামিয়া (Jamia) এলাকায় নাগরিকতা আইন নিয়ে রবিবার হওয়া প্রদর্শন হিংসার চেহারা নিয়ে নিয়েছিল। এই হিংসক প্রদর্শনে অনেকেই আহত হয়েছিলেন। এবার সবাই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনা নিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন। এই ঘটনায় লেখক আর গীতিকার জাভেদ আখতারও (Javed Akhtar) প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। উল্লেখ্য, জাভেদ আখতারকে একটি ট্যুইট করে ট্যাগ করা হয়েছিল, আর সেই ট্যুইটের জবাব দিতে জাভেদ আখতার ট্যুইট করেন।

জাভেদ আখতারকে ট্যাগ করে একজন লিখেছিল, ‘জামিয়ার ছাত্ররা মিডিয়ার উপর আক্রমণ করছে। মিডিয়া জামিয়ার ছাত্র দ্বারা করা শান্তিপূর্ণ প্রদর্শন কভার করতে গিয়ে, জামিয়ার ছাত্রদের হাতেই আক্রান্ত হল। কিন্তু এটা নিয়ে অ্যান্টি ন্যশালান আর সেকুলার গ্যাং কিছু বলছে না। এরা শহুরে জঙ্গি।”

এই ট্যুইটে জাভেদ আখতারকে ট্যাগ করার পর জাভেদ আখতার লেখেন, ‘ল অফ ল্যান্ড অনুযায়ী, যেকোন পরিস্থিতিতে পুলিশ কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের আধিকারিকদের অনুমতি ছাড়া প্রবেশ করতে পারেনা। জামিয়া ক্যাম্পাসে বিনা অনুমতিতে প্রবেশ করে পুলিশ অন্যায় করেছে, এটা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য একটি অশনি সঙ্কেত।”

পুলিশের দিকে আঙুল তোলার পর IPS সন্দীপ মিত্তল (Sandeep Mittal) জাভেদ আখতারকে মোক্ষম জবাব দেন। সন্দীপ মিত্তল জাভেদ আখতারকে মোক্ষম জবাব দিয়ে লেখেন, ‘আদরণীয় আইনি বিশেষজ্ঞ, দয়া করে ল অফ ল্যান্ড, সেকশন নাম্বার আর আইন নিয়ে যদি একটু বিস্তারিত বুঝিয়ে দেন, তাহলে আমি উপকৃত হব।”

আপনাদের জানিয়ে রাখি, রবিবার দক্ষিণ দিল্লীতে বিক্ষুব্ধ প্রদর্শনকারীরা পুলিশ, আম জনতা আর মিডিয়াকে নিশানা বানায়। ভিড় দক্ষিণ দিল্লীকে সম্পূর্ণ ভাবে কবজায় নিয়ে নেয়। বিক্ষোভকারীদের হিংসাত্মক হওয়া আর পুলিশের সাথে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ার পাঁচ ঘণ্টা পর পুলিশ জামিয়া নগরে ফ্ল্যাগ মার্চ করে। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করার জন্য কাঁদানে গাস ব্যবহার করে। উত্তেজিত ভিড় পুলিশ আর মিডিয়ার উপর পাথর ছুঁড়ে আক্রমণ করেছিল।

Related Articles

Back to top button