Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীরে জঙ্গিদের কোমর ভাঙার মতো পদক্ষেপ নিলো ED, সালাউদ্দিন সমেত সাত জঙ্গির সম্পত্তি করা হল জব্দ

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ বৃহস্পতিবার ED জম্মু কাশ্মীরে জঙ্গিদের কোমর ভাঙার মতো পদক্ষেপ নিলো। ED হিজবুল মুজাহিদ্দিন (Hizbul Mujahideen) এর ৭ জঙ্গির ১.২২ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে। এই পদক্ষেপ টেরর ফান্ডিং মামলার অন্তর্গত হয়েছে। জঙ্গিদের এই সম্পত্তি জম্মু কাশ্মীরের অনন্তনাগ, বারামুলা আর বান্দিপোরা থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। রাষ্ট্রীয় তদন্তকারী সংস্থা (NIA) এই জঙ্গিদের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছিল, এরপর ED আর্থিক তছরুপ আইনে জঙ্গিদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার জন্য পদক্ষেপ নেয়।

কেন্দ্র সরকার দ্বারা জম্মু এবং কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার তিন মাসের বেশি সময় পর ED টেরর ফান্ডিং মামলায় হিজবুল মুজাহিদ্দিন এর প্রধান সৈয়দ সালাউদ্দিন এবং অন্য জঙ্গিদের সম্পত্তি গুলোকে নিজের কবজায় করে নেয়। ED এর এক বরিষ্ঠ আধিকারিক জানান, এর আগে এই সম্পত্তি গুলোকে কুর্ক করা হয়েছিল। আর এবার এই সম্পত্তি গুলোকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে নেওয়া হয়।

উনি বলেন, ‘এটাই প্রথমবার যে, আমরা উপত্যকায় এই সম্পত্তি গুলোকে নিজেদের কবজায় নিয়েছি। এর আগে এই সম্পত্তি গুলোকে নিজেদের অধীনে করতে, অন্যান্য এজেন্সি গুলোর উপর ভরসা করতে হত।” উনি বলেন, এই সম্পত্তি অনন্তনাগ, সাপোর আর বান্দিপোরাতে ছিল। উনি জানান, এই সাতটি সম্পত্তি গুলোকে এর আগে কুর্ক করা হয়েছিল।

ED এর আধিকারিকেরা প্রথমে এই স্থান গুলোকে পরিদর্শন করেন আর সেখানে নোটিশ লাগিয়ে দেওয়া হয়। উনি বলেন, এই পদক্ষেপ রাষ্ট্রীয় তদন্তকারী সংস্থার অভিযোগের ভিত্তিতে করা হয়েছে। আধিকারিক জানান, ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পরেই এই সম্পত্তি গুলোকে কবজায় নেওয়া সম্ভব হয়। কেন্দ্র সরকার জম্মু কাশ্মীর থেকে ৫ই আগস্ট ২০১৯ এ ৩৭০ ধারা তুলে দেয়।