নতুন খবরবিনোদনভারতবর্ষ

আমার প্রপিতামহকে গালি দিয়েছে, এই বোকাদের কী বলব! টুইটারে হাহুতাশ জাভেদ আখতারের

মুম্বইঃ সোশ্যাল মিডিয়ায় সংবেদনশীল বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী মদির নীরবতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার জন্য ট্রোল হওয়ার পরে গীতিকার জাভেদ আখতার ট্রোলারদের উপযুক্ত জবাব দিয়েছেন। জাভেদ আখতার বলেছেন, ‘এই বোকাদের কাছ থেকে কিছু আশা করা অর্থহীন। কারণ তাঁরা তাঁর স্বাধীনতা সংগ্রামী প্রপিতামহকেও গালি দিয়েছে।”

জাভেদ আখতার বলেন, মুসলিম মহিলাদের নিলামের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলা, গডসেকে নিয়ে প্রশ্ন করা এবং গণহত্যায় উসকানি দেওয়া লোকেদের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলায় তাঁকে লক্ষ্যবস্তু করা হচ্ছে। জাভেদ আখতার বলেন, কিছু গোঁড়া লোক তাঁর প্রপিতামহকেও গালিগালাজ শুরু করেছে। যিনি ১৮৬৪ সালে ভারতের স্বাধীনতার জন্য সংগ্রাম করতে গিয়ে কালা পানির শাস্তি পান এবং শহীদ হন। এমন বোকাদের কি বলবে?

উল্লেখ্য, জাভেদ আখতার সোমবার সন্ধ্যায় তাঁর টুইটার হ্যান্ডেলে মুসলিম মহিলাদের নিলাম এবং ধর্ম সংসদে দেওয়া বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্যের বিষয়ে মন্তব্য করেছিলেন। এসব বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীর নীরবতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন জাভেদ আখতার। তিনি বলেছিলেন যে, এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদির নীরবতায় তিনি হতবাক।

জাভেদ আখতার বলেছিলেন, ‘এটাই কি সবকা সাথ আর সবকা বিকাশ? যেখানে মুসলিম মহিলাদের অনলাইনে নিলাম করা হয়, যেখানে ২ কোটি ভারতীয়কে গণহত্যা করতে সেনাবাহিনী, পুলিশ এবং জনগণকে উস্কে দেওয়ার জন্য ধর্মীয় সংসদে ঘৃণামূলক বক্তব্য দেওয়া হয়।” এরপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার একটি অংশ জাভেদ আখতার ও তাঁর পরিবারকে নিয়ে অশালীন মন্তব্য করতে শুরু করে।

জাভেদ আখতার সাধারণত প্রতিটি স্পর্শকাতর বিষয়ে তাঁর মতামত দিয়ে দেন। দেশের বর্তমান সরকারকে নানা বিষয়ে প্রশ্নের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন তিনি। এমনকি আফগানিস্তানে ক্ষমতার পরিবর্তনের সময়ও তিনি তালেবানের মতাদর্শকে বজরং দল ও আরএসএসের আদর্শের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। এর পরে তাঁর কোনও ছবি মুক্তি না হতে দেওয়ার হুমকিও দেওয়া হয়।

Related Articles

Back to top button