Press "Enter" to skip to content

অসম, বাংলার হিংসার জন্য সরাসরি ফেজ টুপি আর লুঙ্গি বাহিনীকে দায়ী করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

শেয়ার করুন -

ঝাড়খণ্ডের দুমকায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) একটি নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেন। ওই নির্বাচনী সভায় তিনি বলেন, আমাদের দেশের সংসদে নাগরিকতা আইন নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বদল আনা হয়েছে। উনি অসম, পশ্চিমবঙ্গ (West Bengal) সমেত পূর্বত্তর রাজ্য গুলোতে নাগরিকতা সংশোধন আইনের বিরুদ্ধে চলা বিক্ষোভ নিয়ে বলেন, যারা আগুন লাগাচ্ছে তাঁরা কারা, সেটা তাঁদের জামা কাপড় দেখেই বোঝা যাচ্ছে।

র‍্যালিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখানে আজ এত মানুষ এসেছে সেটা দেখেই বোঝা যাচ্ছে যে ঝাড়খণ্ডে এবার কমল ফুটবেই। আপনারা সবাই, বিশেষ করে আমার আদিবাসী ভাই আর বোনেরা আমাকে পূর্ণ সমর্থন দেবে। শহীদদের মাতি, রাষ্ট্রভক্ত, বীরেদের জন্ম দেওয়া বীর মাতাদের মাটিকে আমি প্রণাম জানাই।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, আমি আপনাদের সেবক হয়ে কাজ করছি, আপনাদের মধ্যে আসি, আর আমার কাজের হিসেব জনতা জনার্দনের চরণে রাখি। একজন কর্মী হিসেবে আদিবাসীদের মধ্যে থেকে তাঁদের সেবা করার সুযোগের আমার অনেক অভিজ্ঞতা রয়েছে। এরজন্য আমি আপনাদের সুবিধা, অসুবিধা খুব ভালো করেই বুঝি।

উনি বলেন, আপনাদের সমস্যার সমাধানের জন্য আমি দিন রাত চেষ্টা করে জাচ্ছি। আপনাদের সেবার জন্য, দেশের সেবার জন্য আমি সমর্পিত। ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা আর কংগ্রেস ঝাড়খণ্ডের রাজ্যের উন্নয়নের জন্য কিছুই করেনি, আর না তাঁরা করবে। ওরা শুধু একটাই জিনিষ জানে, আর সেটা হল বিজেপির বিরোধিতা করা, মোদীকে গালি দেওয়া। বিজেপির বিরোধিতা করতে করতে এরা দেশ বিরোধিতা শুরু করে দেয়।