নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগার পর জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে কলকাতায় ডেকে পাঠালেন ফিরহাদ হাকিম

কলকাতাঃ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কলকাতায় জরুরী ভিত্তিতে ডাক পড়ল আসানসোলের বিধায়ক তথা প্রাক্তন মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারির। আজ সকাল থেকে জিতেন্দ্র তিওয়ারির লেখা একটি বিস্ফোরক চিঠি ফাঁস হওয়ার পর তৃণমূলের মাথায় হাত পড়ে। ওই চিঠিতে জিতেন্দ্র বাবু সরাসরি রাজ্য সরকারকে নিশানা করে লিখেছিলেন যে, সরকারের রাজনীতির কারণে বঞ্চিত আসানসোল। আসানসোলকে স্মার্ট সিটি বানাতে চেয়েছিল কেন্দ্র, কিন্তু রাজ্য সরকার তাতে রাজি না হওয়ায় আসানসোল বহু উন্নয়নমুখি প্রকল্প থেকে বাদ হয়ে যায়। এমনকি সেই প্রকল্পের ক্ষতিপূরণ হিসেবে আসানসোনলকে রাজ্য থেকে টাকা দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু সেটাও পাওয়া যায়নি। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি আর পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম একে অপরের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করেন। তবে গোপন চিঠি মিডিয়ায় ফাঁস হওয়ার ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আসানসোলের প্রাক্তন মেয়র।

জিতেন্দ্র তিওয়ারি রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করে বলেন, কেন্দ্রের মোদী সরকারের স্মার্ট সিটি প্রকল্পের টাকা আসানসোলকে দিতে দেয়নি রাজ্য সরকার। তিনি জানান, রাজ্য সরকারের এই বদান্যতার কারণে ২ হাজার কোটি টাকা থেকে বঞ্চিত হয়েছি আমরা। তিনি জানান, এই টাকার ক্ষতিপূরণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। কিন্তু প্রতিশ্রুতি দিলেও সেটা পূরণ হয়নি।

রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে এহেন গুরুতর অভিযোগ করে পুরমন্ত্রী ফিরিহাদ হাকিমকে চিঠিও দিয়েছিলেন তিনি। আর এই নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে শুরু হয়েছে শোরগোল।

ফিরহাদ হাকিমকে চিঠি লিখে জিতেন্দ্র তিওয়ারি অভিযোগ করেছিলেন যে, কেন্দ্রের মোদী সরকারের স্মার্ট সিটি প্রকল্পের টাকা আসানসোলকে পেটে দেয়নি রাজ্য সরকার। আসানসোল স্মার্টসিটির জন্য মনোনীত হয়েও এই প্রক্লপ থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এরফলে আসানসোলে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু রাজনৈতিক কারণে আজ তা বিশবাঁও জলে। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও, আজও তা এসে পৌঁছায়নি।

তৃণমূল নেতা তথা আসানসোলের প্রাক্তন মেয়রের অভিযোগ শুনে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করে বলেন, এটা তো ভূতের মুখে রাম নাম। এতদিন বিরোধীরা বঞ্চনা নিয়ে অভিযোগ তুলত। কিন্তু এখন নিজের দলের নেতারাই সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলছে। নিজের পিঠ বাঁচাতেই কি এসব করছে তৃণমূল নেতারা?

Related Articles

Back to top button