Press "Enter" to skip to content

JNU হামলা মুম্বাইয়ের ২৬/১১ হামলার সমতুল্য, বললেন উদ্ভব ঠাকরে! মমতা বললেন সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হয়েছে

শেয়ার করুন -

দিল্লীর জওহর লাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় (JNU) তে দুই ছাত্র সংগঠনের মধ্যে হওয়ার সংঘর্ষের পর দেশের রাজনৈতিক আবহাওয়া গরম হয়ে উঠেছে। বিরোধী পক্ষ লাগাতার মোদী সরকারের (Modi Sarkar) উপর এই ইস্যু নিয়ে হামলা করে আসছে। আর এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীরও (Mamata Banerjee) এই নিয়ে মন্তব্য সামনে এসেছে। মমতা ব্যানার্জী JNU এর ছাত্রদের উপর হামলাকে ফ্যাসিস্ট স্ট্রাইক আর মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরে (Uddhav Thackeray) এই হামলাকে মুম্বাইয়ের ২৬/১১ হামলার সাথে তুলনা করলেন। আরেকদিকে কংগ্রেসের সভাপতি সনিয়া গান্ধী এই হামলাকে গণতন্ত্রের হত্যা বলে আখ্যা দিয়েছেন।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরে বলেন, ‘হামলাকারীদের মুখে কাপড় দেওয়ার কেন দরকার পড়ল? ওঁরা কাপুরুষ। আমি টিভিতে দেখলাম আর এটাই বুঝলাম যে, এই হামলা মুম্বাইয়ের ২৬/১১ হামলার সমতুল্য। এবার এটা দেখতে হবে যে, এই মুখ ঢাকা হামলাকারীরা কারা। এখন দেশের ছাত্রদের মধ্যে ভয়ের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। আমাদের সবাইকে একসাথে এসে তাঁদের মনে আত্মবিশ্বাস তৈরি করার দরকার। আমি আমাদের রাজ্যে এইরকম হামলা বরদাশ্ত  করব না।

মমতা ব্যানার্জী বলেন, ‘এটা খুব উদ্বেগজনক। এটা গণতন্ত্রের উপর পরিকল্পনা মাফিক হামলা। যারাই কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে বলে, তাঁদের পাকিস্তানি আর দেশের শত্রু বলা হয়। আমি এর আগে দেশে এমন পরিস্থিতি দেখিনি কখনো।”

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী এই হামলাকে ফ্যাসিস্ট সার্জিক্যাল স্ট্রাইক বলে আখ্যা দিয়েছে। উনি বলেন, ‘দিল্লী পুলিশ অরবিন্দ কেজরীবালের না, কেন্দ্র সরকারের অধীনে কাজ করে। একদিকে ওঁরা বিজেপির গুন্ডা পাঠাল, আরেকদিকে পুলিশ নিষ্ক্রিয় করে দিলো। এটা একটা ফ্যাসিস্ট সার্জিক্যাল স্ট্রাইক।”