নতুন খবরভারতবর্ষ

মাথায় বাজ ভারত বিরোধী প্রোপাগান্ডা চালানো সাংবাদিকের, টাকা নয়ছয়ের অভিযোগে পেল শিক্ষা

নয়া দিল্লিঃ সাংবাদিক রানা আয়ুবকে লন্ডন যাওয়ার আগেই আটকানো হল। তার বিরুদ্ধে করোনা তহবিল অপব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে। মঙ্গলবার টুইট করে এ কথা জানিয়েছেন রানা আইয়ুব নিজেই। তিনি তার টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, “আজ আমাকে মুম্বাই থেকে লন্ডনে যেতে বাধা দেওয়া হয়েছে। আমি যখন ভারতীয় গণতন্ত্র এবং সাংবাদিকদের ভয় দেখানোর বিষয়ে আন্তর্জাতিক সাংবাদিকতা উৎসবে আমার বক্তৃতা দিতে লন্ডনের ফ্লাইট ধরতে গিয়েছিলাম, তখন আমার সঙ্গে এই কাজ করা হয়। আমি কয়েক সপ্তাহ আগে এই ইভেন্ট নিয়ে প্রকাশ্যে জানিয়েছিলাম। আমার সফর আটকানোর পর ইডি আমাকে আমার মেইল বক্সে সমন পাঠায়। কীসের এত ভয়?”

জানা গিয়েছে, মানুষকে সাহায্য করার নামে চাঁদা তোলা ও সেই অর্থ অপব্যবহার করার ঘটনায় ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে আর্থিক তছরুপ আইনে সাংবাদিক রানা আইয়ুবের বিরুদ্ধে বড় ধরনের ব্যবস্থা নেয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। সংস্থাটি আইয়ুবের ১ কোটি ৭৭ লক্ষ টাকার সম্পদ বাজেয়াপ্ত করেছিল। ইডি বলেছিল যে, রানা আইয়ুব ত্রাণের জন্য ২ কোটি ৭৭ লক্ষ টাকা সংগ্রহ করেছিল আর সেখান থেকে ৫০ লক্ষ টাকা সরিয়ে নেয়। ইডির সন্দেহ, রানা ব্যক্তিগত কাজে সেই টাকা খরচ করেছিলেন।

উল্লেখ্য, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১-এ গাজিয়াবাদের ইন্দিরাপুরম থানায় সাংবাদিক রানা আইয়ুবের বিরুদ্ধে IPC-এর 403, 406, 418, 420 ধারা, IT আইনের 66D ধারা এবং মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট-2002-এর ধারা 4-এর অধীনে একটি FIR নথিভুক্ত করা হয়েছিল। এতে রানা আয়ুব দাতব্য প্রতিষ্ঠানের নামে অন্যায়ভাবে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে চাঁদাবাজি করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়।

এফআইআরটি ২০২১ সালের আগস্টে হিন্দু আইটি সেলের বিকাশ শাকৃত্যায়ন দায়ের করেছিলেন। এফআইআরে রানার তিনটি চাঁদা সংগ্রহ অভিযানের কথা উল্লেখ রয়েছে।

Related Articles

Back to top button