নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

নির্বাচন কমিশনে গিয়ে রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের জন্য জোড়াল আবেদন বিজেপির

নয়া দিল্লীঃ পশ্চিমবঙ্গে (West Bengal) আইনশৃঙ্খলা ভেঙে পড়ার অভিযোগ নিয়ে বিজেপির (Bharatiya Janata Party) এক প্রতিনিধি মণ্ডল আজ নির্বাচন কমিশনে যায়। বাংলার বিজেপি নেতারা আজ দিল্লীতে নির্বাচন কমিশনের সাথে সাক্ষাৎ করেন। বিজেপির প্রতিনিধি মণ্ডল নির্বাচন কমিশনকে দুই পাতার স্মারকলিপি জমা দেন, ওই স্মারকলিপিতে বাংলার পুলিশ তৃণমূলের হয়ে কাজ করছে বলে অভিযোগ করা হয়। এর সাথে সাথে রাজ্যে এখনো আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন করার দাবিও করা হয়। বিজেপি নেতাদের এই প্রতিনিধি মণ্ডলে স্বপন দাসগুপ্ত আর লকেট চ্যাটার্জীও ছিলেন।

আরেকদিকে তৃণমূল বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করা রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর সুরক্ষা বাড়ানো যেতে পারে। শুভেন্দু অধিকারীকে Z ক্যাটাগরির সুরক্ষা প্রদান করতে পারে কেন্দ্র। এর সাথে সাথে একটি বুলেটপ্রুফ গাড়িও দেওয়া হতে পারে ওনাকে। এছাড়াও, সুত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী শুভেন্দু অধিকারী আগামী শনিবার বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন।

আরেকদিকে, তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা ও রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী আগামী দু-চারদিনেই বিজেপিতে যোগদান করবেন, এমনটাই দাবি করলেন বিজেপির অন্যতম হেভিওয়েট মুকুল রায়। কোনো রাখঢাক না রেখেই বাংলার রাজনীতির চাণক্যের দাবি, শুভেন্দুর সাথে কথা প্রায় সম্পূর্ণ। আগামী কয়েকদিনে তিনি ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করবেন।

শুভেন্দুর সাথে তৃণমূলের দূরত্ব বেশ কয়েক বছর। কিন্তু বার বার তার দল বদল নিয়ে জল্পনা থাকলেও শুভেন্দু তৃণমূলেই থেকেছেন এবং দলের গুরুত্বপূর্ণ দ্বায়িত্ব সামলেছেন। শেষ পর্যন্ত গত কয়েকদিনে সেই ফাটল আরো চওড়া হয়েছে। তৃণমূলের বিরুদ্ধে একের পর এক ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন একদা নন্দীগ্রাম থেকে উঠে আসা এই নেতা। ছেড়েছেন মন্ত্রীত্বও।

মন্ত্রীত্ব ছাড়ার পর থেকেই তার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনাও দৃঢ় হয়। মুকুল রায় সহ একাধিক নেতা ভারতীয় জনতা পার্টিতে স্বাগত জানিয়েছিলেন। কিন্তু শুভেন্দু এখনো অবধি নিজের অবস্থান নিয়ে ধোঁয়াশা রেখেছিলেন। এই পরিস্থিতিতে মুকুল রায়ের এই দাবি যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। যদিও এখনো পর্যন্ত শুভেন্দু নিজে এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেন নি।

অন্যদিকে, আগামী ১৯ ডিসেম্বর রাজ্যে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ৷ শুভেন্দুর গড় মেদিনীপুরেই তার সভা করার কথা৷ সেই সভাতেই গেরুয়া শিবিরে শুভেন্দু যোগদান করেন কিনা তা সময়ই বলবে।

Related Articles

Back to top button